নিউজ ডেস্ক : বিশেষ ব্যক্তিত্বের জন্য বিশেষ বাহন। বাইক নয়, ইলেক্ট্রিক্যাল ট্রাইসাইকেলে চড়েই এবার গ্রাহকদের খাবার ডেলিভারি করবেন Zomatoর ডেলিভারি বয় রামু। শারীরিক অক্ষমতা কাটিয়ে নিজের দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন করায় Zomatoর তরফ থেকে এই সওগাত পেলেন তিনি।

দু’টি পা অকেজো। তবু মনের জোরে শারীরিক অক্ষমতাকে কাটিয়ে উঠেছিলেন অনেক আগেই। ট্রাই-সাইকেলে চড়েই Zomato-র হয়ে খাবার ডেলিভারি করতেন রামু সাহু। নিজের অদম্য মনবল দিয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন দিল্লির ওই যুবক। শারীরিক অক্ষমতার জেরে বাইকে চড়ে খাবার ডেলিভারি করার সুযোগ ছিল না রামুর। তবুও নিজের কর্তব্যে চির অবিচল থেকে এসেছেন তিনি। ট্রাই-সাইকেলে চড়ে খাবার ডেলিভারি করলেও কোনোদিন সময়ের পরে গ্রাহকদের বাড়ি খাবার পৌঁছে দেন নি তিনি।

শারীরিক প্রতিবন্ধকতা আছে জেনেও রামুর প্রতি আস্থা রেখেছিল Zomato কর্তৃপক্ষ। জুটেছে গ্রাহকদের ভালবাসাও। প্রতিবন্ধী যুবকের লড়াইয়ের ভিডিয়ো করে সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিয়েছিলেন Zomato-রই এক গ্রাহক। রামুর ট্রাই-সাইকেলে খাবার ডেলিভারির ভিডিয়োটি রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। আর প্রশংসার জোয়ার আছড়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিয়োটির দৌলতে প্রশংসা কুড়িয়েছে Zomato কর্তৃপক্ষও।

রামুর ইচ্ছে শক্তির কাছে ‘প্রতিবন্ধী’ শব্দটাই যে কেবল প্রতিবন্ধকতা ভরপুর, তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছেন রামু নিজেই। রামুর ভিডিয়োটি তাঁরই মতো হাজার হাজার মানুষের এখন এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা।