নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব আইন, ৩৭০ ধারা বাতিল-সহ একাধিক ইস্যুতে কয়েকমাস ধরেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ক্রমেই বাড়ছে কেন্দ্র-বিরোধী বিক্ষোভ-প্রতিবাদ। এরই মধ্যে মোদী সরকারকে নিশানা করে বিস্ফোরকম মন্তব্য করলেন জাকির নায়েক। জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের পক্ষে সওয়াল করলে নাকি জাকির নায়েককে ভারতে ঢোকার ছাড়পত্র দেবে বলে জানিয়েছে মোদী সরকার। খোদ জাকির নায়েকেরই এহেন মন্তব্যে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

একটি ভিডিও প্রকাশ করে নায়েক জানান, তার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এক প্রতিনিধির দেখা হয়েছিল দিন-কয়েক আগেই। সেই প্রতিনিধিই নাকি নায়েককে জানিয়েছিলেন মুসলিম প্রধান দেশগুলির সঙ্গে উন্নত সম্পর্ক তৈরি করতে তৎপর কেন্দ্রীয় সরকার। নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের ওই প্রতিনিধির সঙ্গে কয়েক ঘণ্টা ধরে বৈঠকও করেছিলেন বলে জানিয়েছেন জারিক নায়েক। যদিও তিনি ৩৭০ ধারা রদ করার সমর্থন ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি, এমনই জানিয়েছেন প্রকাশিত ভিডিও-য়।

উস্কানিমূলক মন্তব্যের অভিযোগে দেশছাড়া জাকির নায়েক। এছাড়া বিদেশ থেকে টাকা নেওয়ারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। বর্তমানে জাকির নায়েক রয়েছেন মালয়েশিয়াতে। ভিডিও-য় জাকির নায়েকের আরও দাবি, ‘ভারতের কোনও মুসলিম নেতা সিএএ বা এনআরসিকে সমর্থন জানাবেন না।’

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর বিক্ষিপ্ত কয়েকটি গন্ডগোল হয়৷ যদিও আপাতত ভূস্বর্গের পরিস্থিতি শান্ত বলেই দাবি কেন্দ্রীয় সরকারের।