নয়াদিল্লি: আইপিএল-এর হাত ধরে জাতীয় দলে প্রত্যার্বতনের স্বপ্ন দেখছেন যুবরাজ সিং ও জাহির খান৷ আইপিএল এইটে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের হয়ে খেলতে দেখা যাবে জাতীয় দলে ব্রাত্য দুই তারকা ক্রিকেটারকে৷
২০১১ বিশ্বকাপে ভারতের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পিছনে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন যুবি ও জাহির৷ গত বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় যুবরাজ ও দেশের এক নম্বর বাঁ-হাতি পেসার জাহিরের এবারের বিশ্বকাপের দলে জায়গা হয়নি৷ কিন্তু, হালছাড়ার পাত্র নন দু’জনেই৷ আইপিএল এইটে পারফর্ম করে ফের জাতীয় দলে ফিরতে মরিয়া যুবি-জাহির৷ ঘটনাচক্রে এবার দু’জনকেই দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের জার্সিতে দেখা যাবে৷ নিলামে এবার যুবিকে ১৬ কোটি টাকা দিয়ে নিয়েছে দিল্লি৷ যুবি বলেন, ‘দু’ বছর আমার সময়টা ভালো যায়নি৷ কিন্তু কঠোর পরিশ্রম করে ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রচুর রান করেছি৷ আইপিএল–এ পারফর্ম করার ব্যাপারেও আশাবাদী৷ মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ‘বাতিল’ বাঁ-হাতি পেসার জাহিরকে নিয়েছে ডেয়ারডেভিলস৷ জাহির বলেন, ‘ক্রিকেট মাঠে ফিরতে আমি মুখিয়ে রয়েছি৷ দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে ছিলাম৷ আইপিএল এইটে ফের নিজেকে প্রমাণ করতে চাই৷’ গত বছর নিউজিল্যান্ড সফরের পর থেকে বাইশ গজের বাইরে মুম্বইয়ের ৩৬ বছরের বাঁ-হাতি পেসার৷ ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী কোচ গ্যারি কার্স্টেনের কোচিংয়ে ফের খেলবে জাহির-যুবি৷ দু’জনের মুখেই গ্যারির প্রশংসা৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।