নয়াদিল্লি: আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে দেশের জার্সিতে দেওয়ার মত আর অবশিষ্ট নেই কিছু। তাই আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে যবনিকা টানার কথা ভাবছেন সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান যুবরাজ সিং। তবে ক্রিকেটকে এখনই বিদায় জানাচ্ছেন না তিনি। বৈদেশিক টি২০ লিগে পসার জমাতে চান এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। তাই বিসিসিয়াইয়ের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় যুবরাজ।

বিসিসিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, ‘দেশের জার্সি গায়ে আর খেলতে ইচ্ছুক নন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ও প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কথা চিন্তা করছেন যুবরাজ। এ নিয়ে খুব শীঘ্রই বোর্ডের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন তিনি। বোর্ডের অনুমতি পেলেই কানাডার জিটি২০, আয়ারল্যান্ডের ইউরো টি২০ স্ল্যাম এবং নেদারল্যান্ডের টি২০ টুর্নামেন্টে খেলতে দেখা যাবে তাঁকে। এই সমস্ত লিগগুলিতে খেলার জন্য অফারও রয়েছে যুবরাজের কাছে।’

আর পড়ুন: ইতিহাসের হাতছানি ইরফানের সামনে

সম্প্রতি ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়র লিগে খেলার জন্য ড্রাফটে নিজের নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন ইরফান পাঠান। অনুমোদন পেলে তিনিই হবেন প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার, যিনি বিদেশের কোনও টি২০ লিগে খেলার ছাড়পত্র পাবেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর না নিলেও যেহেতু বোর্ডের রেজিস্টার ক্রিকেটার হিসেবে পাঠানের নাম নেই, সেক্ষেত্রে বোর্ডের নো-অবজেকশন সার্টিফিকেট জোগাড় করতে হবে জুনিয়র পাঠানকে। কিন্তু যুবরাজের ক্ষেত্রে বিষয়টি একটু আলাদা।

আর পড়ুন: সমলিঙ্গ সম্পর্কে রয়েছেন তিনি, সাহসী স্বীকারোক্তি দ্যুতি চাঁদের

জাতীয় দলের রেজিস্টার টি২০ ক্রিকেটার তিনি। তাই প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও জাতীয় দলের একজন সক্রিয় ক্রিকেটার হিসেবেই রয়ে যাবেন যুবরাজ। অর্থাৎ বোর্ডের এক আধিকারিকের কথায়, যুবরাজের ক্ষেত্রে নিয়মাবলী খতিয়ে দেখতে হবে।

সদ্য সমাপ্ত আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ফ্র্যাঞ্চাইজির তাঁকে দলে নিলেও খুব বেশি খেলা বা পারফর্ম করে দেখানোর সুযোগ পাননি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক ওভারে ছয় ছক্কার মালিক। এরপরই ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন ২০১১ বিশ্বকাপের ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট। বিদেশের লিগগুলোতে খেলার জন্য তাই বোর্ডের অনুমোদনের অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই তাঁর।