আবুধাবি: চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটাররা বোধহয় এভাবেই কামব্যাক করেন এবং সমালোচনার জবাব ছুঁড়ে দেন। কেন যে তিনি বিশ্বের পয়লা নম্বর (টেস্ট র‍্যাংকিং) বোলার সেটা সানরাইজার্সের হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে আইপিএলের দ্বিতীয় ম্যাচেই জানান দিলেন অজি ফাস্ট বোলার। প্রথম ম্যাচে ৩ ওভারে খরচ করেছিলেন ৪৯ রান। মুম্বই ব্যাটসম্যানদের সামনে অসহায় কামিন্সকে দেখে তাঁকে দিয়ে ৪ ওভার সম্পূর্ণ করানোর ঝুঁকিই নিতে পারেননি নাইট অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক।

কিন্তু সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে একেবারে স্বমহিমায় ধরা দিলেন প্যাট। গত ম্যাচের ভুল শুধরে ডেভিড ওয়ার্নার-জনি বেয়ারস্টো জুটির বিরুদ্ধে যেভাবে নিখুঁত লাইন-লেংথে নিজেকে মেলে ধরলেন তাতে গত ম্যাচে তাঁর সমালোচকেরা মুখ লুকোচ্ছেন বৈকি। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ৪ ওভারে মাত্র ১৯ রান খরচ করে জনি বেয়ারস্টোর উইকেট তুলে নিলেন সাড়ে ১৫ কোটির বোলার। গত ম্যাচে ঝোড়ো অর্ধশতরান করা বেয়ারস্টোর স্টাম্প ভেঙে দিলেন ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারের অন্তিম বলে। কামিন্সের বিরুদ্ধে সেভাবে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠার সুযোগই পেলেন না ডেভিড ওয়ার্নার।

প্রথম স্পেলে ৩ ওভারে ১১ রান খরচ করে এদিন বেয়ারস্টোর উইকেট তুলে নেন কামিন্স। স্লগ ওভারে এসে এক ওভারে খরচ করেন ৮ রান। আর কামিন্সের প্রত্যাবর্তন এদিন যেন বুস্ট-আপ করে তাঁর সতীর্থ বোলারদেরও। পাল্লা দিয়ে পারফর্ম করেন তারাও। এদিন ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে দলের ৭ জন বোলারকে দেখে নেন নাইট অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। খুব বেশি উইকেট তুলে না নিতে পারলেও বিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের উপর নিয়ন্ত্রণ ছিল নাইট বোলারদের হাতেই। সানরাইজার্সের কোনও ব্যাটসম্যানকেই সেভাবে জ্বলে ওঠার সুযোগ দেননি তারা।

সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে দলে সুযোগ পাওয়া মিস্ট্রি স্পিনার বরুণ চক্রবর্তীও বেশ সপ্রতিভ। ৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন তিনি। ৩০ বলে ৩৬ রান করেন সানরাইজার্স অধিনায়ক ওয়ার্নার। সর্বোচ্চ ৫১ রানের ইনিংস আসে মনীশ পান্ডের ব্যাট থেকে। ৩০ রান আসে ঋদ্ধিমান সাহার ব্যাট থেকে। কিন্তু কোনও ব্যাটসম্যানই নাইট বোলারদের কখনোই চাপে ফেলতে পারেননি। শেষ অবধি নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৪২ রান সানরাইজার্সকে বেঁধে রাখেন কেকেআর বোলাররা।

টুইটারে কামিন্সের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন যুবরাজ সিং। তিনি লেখেন, ‘দুর্দান্ত কামব্যাক প্যাট কামিন্স। প্রথম ম্যাচে যথেচ্ছ রান খরচের পর কামিন্সের এই স্পেল তরুণদের কাছে শিক্ষনীয়। গতম্যাচের ভুল শুধরে সানরাইজার্সের ব্যাটসম্যানদের যেভাবে চাপে ফেলল তাতে বলতেই হয় এটা একজন কোয়ালিটি বোলারের হলমার্ক।’

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।