শ্রীনগর: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পরিচালিত কেন্দ্র সরকার দেশ চালাতে ব্যর্থ। তা সকলের সামনে তুলে ধরতে জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শহর শ্রীনগরের লালচকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবে যুব কংগ্রেস।

গত মাসের ১৬ তারিখ থেকে যুব ক্রান্তি যাত্রা শুরু করেছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের যুব শাখা। কন্যাকুমারী থেকে শুরু হয়ে সেই যাত্রা ৩০ তারিখে দিল্লিতে গিয়ে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। যাত্রা পথে কাশ্মীরের লালচকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবে যুব কংগ্রেস। যা চলতি সপ্তাহের শনিবার হওয়ার কথা।

এই যুব ক্রান্তি যাত্রার নেতৃত্বে রয়েছেন সভাপতি কেশব চন্দ্র যাদব এবং শ্রীনিবাস বিভি। লালচকে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমের সামনে জানিয়েছেন যুব কংগ্রেসের মুখপাত্র অমৃশ রঞ্জন পাণ্ডে। তাঁর কথায়, “আমরা পাকিস্তানে বিরিয়ানি খেতে যাচ্ছি না। আমরা ভারত বিদ্বেষীদের দেশের যুব সমাজের ক্ষমতা দেখাতে যাচ্ছি।”

যুব কংগ্রেসের মুখপাত্র অমৃশ রঞ্জন পাণ্ডে আরও জানিয়েছেন যে তামিলনাড়ু, কেরল, কর্ণাটক, অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানা এবং পশ্চিমবঙ্গ ঘুরে পঞ্জাব হয়ে জম্মু-কাশ্মীরে প্রবেশ করবে যুব ক্রান্তি যাত্রা। মোট নয় হাজার কিলোমিটার যাত্রা করবে রাহুল গান্ধীর যুব বাহিনী।

জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শহর শ্রীনগরের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা লালচক। সেখানে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দাপট মারাত্মক। সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস, সেনার উপরে পাথর ছোঁড়া সবই যেন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। মুখপাত্র অমৃশ রঞ্জন পাণ্ডে বলেছেন, “লাল চকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে আমরা জানাতে চাইছি যে কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কেউ কেউ রাজনৈতিক স্বার্থে এটাকে ভাঙতে চাইছে।”