স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: গরুর সঙ্গে সঙ্গম! সেই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হল বীরভূমে৷ অভিযোগও দায়ের হল পুলিশের কাছে৷ তদন্তে নেমে একজনকে আটকও করেছে পুলিশ৷ সে আবার নাবালক৷

তবে যাকে আটক করা হয়েছে, সে গরুর সঙ্গে সঙ্গম করেনি৷ বরং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সে অন্য একজনকে গরুর সঙ্গে সঙ্গমে বাধ্য করে৷ তার পর সেই ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করে৷ সেই ভিডিওই ভাইরাল হয়েছে বীরভূমে৷

আরও পড়ুন: ‘মসজিদ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তে বিশ্বে ধর্মযুদ্ধ শুরু হতে পারে’

আর যাকে গরুর সঙ্গে যৌনসংসর্গ স্থাপনে বাধ্য করা হয় সেও এক কিশোর৷ সে-ই গরু নিয়ে মাঠে গিয়েছিল৷ ভিডিও ভাইরাল হতেই বাড়িতে সে সব জানায়৷ তার পর অভিযোগ দায়ের হয় পুলিশের কাছে৷

ঘটনার সূত্রপাত ওই ভিডিও ঘিরে৷ বীরভূমে আচমকাই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ওই ভিডিও৷ ভিডিওতে দেখা যায় একটি গরুর সঙ্গে সঙ্গম করছে এক কিশোর৷ পরে জানা যায় ভিডিওটি বীরভূমের খয়রাশোল থানার জামরান গ্রামে৷ পরিচয়ও মেলে ওই কিশোরের৷ তখন সে বাড়িতে সব জানায়৷ তখনই ছেলেটির বাবা খয়রাশোল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷

আরও পড়ুন: শিয়ালদহ শাখায় বিপর্যস্ত রেল পরিষেবা, বন্ধ ট্রেনের বুকিং

পুলিশের কাছে ছেলেটি জানিয়েছে, ঘটনাটি সোমবার ঘটেছে৷ সেদিন সে মাঠে গরু চরাতে গিয়েছিল৷ তখন সেখানে আসে ওই গ্রামেরই সদ্য উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা পাশ হওয়া অন্য এক কিশোর৷ ওই কিশোরই তাকে গরুর সঙ্গে যৌন সংসর্গ করতে বাধ্য করে৷ কাউকে নাও জানাতে বলে৷

কিন্তু ঘটনার সময় তুলে রাখা হয় ভিডিও৷ তার পর সেই ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়া হয়৷ নবম শ্রেণির ওই ছাত্রের দাবি, ‘‘ভয় দেখিয়ে এই কাজ করানো হয়েছে আমাকে দিয়ে। বাড়িতে বলতে বারণও করেছিল৷ প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় আমাকে।’’

আরও পড়ুন: নতুন সম্পর্কে ঐন্দ্রিলা! কী হবে অঙ্কুশের

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.