স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: কাশ্মীরে ভারতীয় জওয়ান শহিদ হওয়ার ঘটনায় গোটা দেশ যখন শোকাহত, প্রতিটি এলাকায় মৌন মিছিল ও মোম প্রজ্বলন করে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা ও তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছেন সকলে। তখনই কিছু মানুষ পুরোন শত্রুতার বদলা নিতে ঘোলা জলে মাছ ধরার কাজে নেমে পড়েছেন। বদলা নিতে পরিকল্পিত ভাবে কাউকে পাকিস্তানপন্থী বলে প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ৷

এমনই এক ঘটনা সামনে এল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে। স্থানীয় চকভবানী এলাকার বাসিন্দা এক যুবকের বিরুদ্ধে পাকিস্তান জিন্দাবাদ শ্লোগান দেওয়ার অভিযোগ তোলেন তারই কিছু পুরোন বন্ধু। বালুরঘাট কলেজ মোড়ে জনবহুল এলাকায় এদিন দুপুরে সৌম্যদীপ সরকার নামের ঐ যুবক পৌছালে কয়েকজন তাকে পাকিস্তানপন্থী আখ্যা দিয়ে মারধর করতে শুরু করে৷

আশপাশের লোকজন তাকে কোনমতে উদ্ধার করে থানায় খবর দেন। পুলিশ গিয়ে আক্রান্ত যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। আক্রান্ত যুবক অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তাকে মিথ্যে পাকিস্তানপন্থী প্রতিপন্ন করার চেষ্টার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

যুবকের অভিযোগ দুদিন আগেও তার বিরুদ্ধে কয়েকজন বন্ধু আচমকাই তাকে রাস্তায় অপবাদ দেয় যে সে নাকি পাকিস্তান জিন্দাবাদ শ্লোগান দিয়েছে। বিষয়টি সোমবারও তাদের সাথে আলোচনা করে মিটমাটও করে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু তার পরেও একই ভাবে আচমকাই কলেজ মোড়ে মারধোর শুরু করা হয় বলে অভিযোগ৷ তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন যুবক৷

এই ঘটনার বিরুদ্ধে সংস্কৃতির শহর বালুরঘাটের মানুষজন সোচ্চার হয়েছেন। সকলের একটাই দাবি জওয়ান শহিদের ঘটনাকে কাজে লাগিয়ে কেউ যাতে কারও বিরুদ্ধে রটনা রটিয়ে কোন ফায়দা নেওয়া বা অশান্তি বাধানোর চেষ্টা না করতে পারেন, সেব্যাপারে সকলের সতর্ক থাকতে হবে৷

বালুরঘাট থানার আইসি জয়ন্ত দত্ত জানিয়েছেন যে আক্রান্ত যুবক লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে। তাতে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। অভিযুক্তদের আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও আইসি জানিয়েছেন।