নয়াদিল্লি: নজির গড়ল পরীক্ষার উপস্থিতির হার৷ ৪ সেপ্টেম্বর ছিল ভারতীয় রেলওয়ের কম্পিউটার বেসড পরীক্ষা৷ পদের নাম অ্যাসিস্ট্যান্ট লোকো পাইলট এবং টেকনিশিয়ান৷ তবে, এবারের রেলওয়ের এই পরীক্ষায় প্রার্থীদের উপস্থিতির হার রেকর্ড তৈরি করল৷ রেলমন্ত্রক জানাচ্ছে, আরআরবি এএলপি / টেকনিশিয়ন পদের পরীক্ষায় ৭৬.৭৬ শতাংশ প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন৷

একটি ট্যুইটের মাধ্যমে রেলমন্ত্রক জানিয়েছে,‘আমরা সফলভাবে সিবিটির প্রথম পর্ব উত্তীর্ণ করেছি৷ যেখানে ৬৪,০৩৭ এএলপি এবং টেকনিকাল পোস্টের জন্য আবেদন করেছেন প্রায় ২৪ লক্ষের বেশি প্রার্থী৷ পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ছিল ৭৬.৭৬ শতাংশ৷ অন্যদিকে, গতবারের পরীক্ষাটির জন্য আবেদন করেছিলেন ৩২ লক্ষ প্রার্থী৷ উপস্থিতির হার ছিল ৪৭.৪৭ শতাংশ৷’

পরীক্ষা পর্বটি ছিল যথাক্রমে অগস্ট ৯, ১০, ১৩, ১৪, ১৭, ২০, ২১, ২৯, ৩০, ৩১ এবং সেপ্টেম্বর ৪ ৷ সরকারি সূত্রের খবর, পরীক্ষায় উপস্থিত হয়েছিল প্রায় ৩৬ লক্ষের বেশি প্রার্থী৷ তবে, অনুপস্থিতির সংখ্যাও নেহাৎ কম নয়, প্রায় ১১ লক্ষের মত৷ আর, এই অনুপস্থিতির সংখ্যাই বাড়াতে পারে আপনার সুযোগকে৷ প্রাথমিকভাবে প্রার্থীদের অনুপস্থিতির কারণ হিসেবে উঠে এসেছে পরীক্ষা কেন্দ্রগুলির লোকেশনের বিষয়টি৷ অনেক আবেদনকারীরাই স্থানীয় এলাকার কাছাকাছি পরীক্ষাকেন্দ্র না পাওয়ায় অভিযোগ জানিয়েছেন৷

রেলমন্ত্রক জানাচ্ছে, ১৭ শতাংশ আবেদনকারী নিজেদের বাড়ির ৫০০ কিমির মধ্যে পরীক্ষাকেন্দ্র পাননি৷ যার ফলে বেড়েছে অনুপস্থিতির সংখ্যা৷ প্রায় ৮৩ শতাংশ প্রার্থী ৫০০ কিমির মধ্যে পরীক্ষাকেন্দ্র পেয়েছেন৷ অন্যদিকে, মহিলা পরীক্ষার্থী এবং শারীরিরভাবে অক্ষম প্রার্থীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল৷ উভয় পরীক্ষার্থীদের জন্যই ২০০ কিমির মধ্যে পরীক্ষাকেন্দ্র দেওয়া হয়েছিল৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।