গান্ধীনগর : মোদীর রাজ্যে সামনে এল এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। বিষধর গোখরো সাপ নিয়ে নাচের অভিযোগ উঠল দুই মহিলা এবং এক ১২ বছরের কিশোরীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গুজরাটের জুনাড়গড় জেলায়।

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে এই ঘটনায় তাঁদের সবাইকে আটক করা হয়েছে। নবরাত্রি উপলক্ষ্যে গর্বা নাচের এক অনুষ্ঠানে এই কাণ্ড ঘটায় তিনজন। তাঁদের এই সাপ নিয়ে নাচের ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওয় দেখা যায়, সাপ হাতে ধরে গর্বা নাচছেন দুই মহিলা সহ এক কিশোরী।

জুনাগড়ের ডেপুটি কনজারভেটর অব ফরেস্ট সুনীল বেরওয়াল জানান, এই নৃত্যানুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল ৬ অক্টোবর অর্থাৎ অষ্টমীর দিন। তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখে আমরা ঘটনা সম্পর্কে জানতে পারি।

জানা গিয়েছে, আটকের পর তাদের একটি স্থানীয় আদালতে পেশ করা হয়। যেখানে তাঁদের জামিন মঞ্জুর করা হয়। তিনি আরও জানান, তদন্তে সামনে এসেছে এক নতুন তথ্য। তিনটি সাপের মধ্যে কেবল কোবরা সাপটি ছিল বিষাক্ত ও বাকি সাপ দুটি ছিল নির্বিষ।

উল্লেখ্য, বন্যপ্রাণী আইন আনুসারে সাপ ধরা ও পোষা বা তা নিয়ে খেলা দেখানো অপরাধ। তাই সাপ নিয়ে নাচের ঘটনায় ওই তিনজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় পুলিশ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ