ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: গলায় গামছা বাঁধা অবস্থায় এক কিশোরীর দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব যাদবপুরের নতুনপল্লিতে। কীভাবে গলায় ফাঁস তা নিয়ে ধন্দে পড়েছে পরিবার। ফাঁস লাগার পদ্ধতিই ভাবাচ্ছে পুলিশকে। পরিবারের দাবি, কিশোরীকে খুন করা হতে পারে।

মৃত কিশোরীর পরিবার সূত্রে খবর, বাড়িতে ওই সময় কিশোরীর বাবা-মা ছিলেন না। ফাঁস লাগা অবস্থায় বিছানায় পড়ে ছিল কিশোরীর নিথর দেহ।

জানা গিয়েছে, কিছুদিনের আগেই মোবাইল কিনে দিয়েছিলেন বাবা। মোবাইল নিয়ে বেশ খুশিই ছিল কিশোরী। এমনকী আজ সকালেও ফোনের বিভিন্ন ফিল্টার ব্যবহার করে মজার ছবিও তোলে সে। যেগুলো থেকে অনুমান এ দিন সকালেও স্বাভাবিকই ছিল কিশোরী। আত্মহত্যা, নাকি খুন উত্তর খুঁজছে পুলিশ। তবে পুলিশ জানিয়েছে, ওই কিশোরীর গলায় আঁচড়ের দাগ রয়েছে।

মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখছে পুলিশ। পরিবারের লোকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ