নয়াদিল্লি: শাহিন বাগে চলছে সিএএ বিরোধী প্রতিবাদ। তারই মধ্যে ঘি ঢাললেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ভোট প্রচারে গিয়ে বলে এলেন, ‘ওদের বিরিয়ানি নয়, গুলি খেতে দিতে হবে।’

দিল্লিতে নির্বাচনী প্রচারে এসে প্রথম দিনেই বিতর্কে জড়ালেন তিনি। জঙ্গিদের বিরিয়ানি নয় গুলি বলে হুঙ্কার দিয়েছেন তিনি। শাহিনবাগে সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীদের বিরিয়ানি পাঠাচ্ছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল এমনই অভিযোগ করেন যোগী।

শাহিন বাগের সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীদের ‘জঙ্গি’ বলে আক্রমণ করেছেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি শাহিনবাগের আন্দোলনকারীদের গুলি করে মারার হুমকি দিয়েছেন তিনি। যোগী বলেছেন বিরিয়ানি নয় জঙ্গিদের জন্য গুলি রয়েছে।

যোগী আদিত্যনাথ প্রচার সভা থেকে অভিযোগ করেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল শাহিনবাগের আন্দোলনকারীদের বিরিয়ানি খাওয়াচ্ছেন। অথচ দিল্লিবাসীকে পরিশ্রুত পানীয় জল দিতে পারেন না কেজরিওয়াল। দিল্লিবাসীকে বিষাক্ত জল পান করাচ্ছে সরকার এমনই অভিযোগ করেছেন তিনি।

যোগী হুঙ্কার দিয়েছেন মোদীর শাসনকালে প্রত্যেক জঙ্গিকে চিহ্নিত করে গুলি করে মারা হবে। যোগী অভিযোগ করেছেন আগে কাশ্মীরে পাকিস্তান থেকে টাকা নিয়ে জঙ্গিরা দেশের সম্পত্তি পাথর ছুড়ে নষ্ট করত আর তাদের সমর্থন জানাত কেজরিওয়াল এবং কংগ্রেস

এদিকে শনিবার শাহিনবাগ এলাকায় চলে গুলি। সিএএ ও এনআরসির বিরোধিতায় আন্দোলন জারি রয়েছে সেখানে। তার কাছেই শনিবার এক দুষ্কৃতী গুলি চালায়।

শাহিনবাগের কাছে জশোলা রেড লাইটের কাছে শূন্যে গুলি চালায় ওই যুবক। তার নাম কপিল বলে জানা যাচ্ছে। তবে কোনও হতাহতের খবর এখনও পর্যন্ত নেই। ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, ওই দুষ্কৃতী বলছে, এই দেশ কারও হিসেবে চলবে না। শুধু হিন্দুদেরই চলবে।

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকে পড়ে এক কিশোর। রামভক্ত গোপাল নামে ওই কিশোর দিল্লি পুলিশের সামনেই নাটকীয় ভঙ্গিতে গুলি চালায়। সেদিন আহত হয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র স্নাতোকত্বর শাদাব। তাঁর হাতে গুলি লাগে। তার পরে পুলিশের ব্যারিকেড পেরিয়ে তাঁকে হাসপাতালে পৌঁছতে হয়। ‌