লখনউ: একদিকে কেন্দ্রে শরিকদের নিয়ে জোট শক্ত করছে এনডিএ৷ অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের মত গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে শরিক মন্ত্রীকে পদ থেকে সরিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ রাজ্যপাল রাম নায়েক মুখ্যমন্ত্রীর এই আবেদন পত্র গ্রহণ করে অনগ্রসর শ্রেণী উন্নয়ন মন্ত্রী ও বিজেপি শরিক এসবিএসপি নেতা ওম প্রকাশ রাজবরকে পদ থেকে অব্যাহতি দিলেন৷

সোমবার রাজবরকে পদ থেকে সরিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ মুখ্যমন্ত্রীর অফিসের এক মুখপত্র এই তথ্য দেন৷ রাজবরের পাশাপাশি, সুহেলদেব ভারতীয় সমাজ পার্টি বা এসবিএসপি দলের অন্যান্য সদস্যদের পদ থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

আরও পড়ুন : গোবলয়ে মোদী ঝড়ের দাপট বেশি, বলছে সমীক্ষা

এর আগে মূল জোট শরিক বিজেপির বিরুদ্ধে একাধিক বিতর্কিত ও সমালোচনামূলক মন্তব্য করেছেন রাজবর৷ তাঁকে সতর্কও করা হয়েছিল৷ ২০১৮ সালের শেষের দিকে এনডিএ ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন তিনি৷ লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে বেরিয়ে তিনি বলেছিলেন বিজেপি নেতাদের জুতো দিয়ে পেটানো উচিত৷

সম্প্রতি তিনি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে নিজের পদত্যাগ পত্রও পাঠান৷ প্রকাশ্যেই এসপি-বিএসপি জোট বা মহাগঠবন্ধনকে সমর্থন করেছিলেন রাজবর৷ এতে তাঁর ওপর যথেষ্ট ক্ষুব্ধ হন যোগী৷ এর আগে রাজবর বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য যোগ্যতম দাবিদার হলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন : বুথফেরত সমীক্ষা মমতাকে ‘পলিটিক্যাল আইসিইউ’তে পাঠিয়ে দিয়েছে: গিরিরাজ সিং

২০১৭ সালের মার্চ মাসে উত্তর প্রদেশে বিজেপি ক্ষমতায় আসে৷ জোট শরিক সুহেলদেব ভারতীয় সমাজ পার্টির হাতে দেওয়া হয়েছিল অনগ্রসর শ্রেণী উন্নয়ন এবং বিকলাঙ্গ মানুষদের উন্নয়ন মন্ত্রকের দায়িত্ব। গত কয়েক মাস ধরেই সরকারে থেকেও বিজেপি শিবিরকে ক্রমাগত আক্রমণ করে চলেছেন ওম প্রকাশ রাজভর। বিভিন্ন ইস্যুতে উত্তর প্রদেশ সরকারের বিরুদ্ধে তিনি মুখ খুলেছেন। একই সঙ্গে এনডিএ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার কথাও ঘোষণা করে দিয়েছেন।

তার আগে বিজেপি শিবিরের বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ করেন ওম প্রকাশ। মহাজোটে না থাকলেও এনডিএ শিবিরে তিনি থাকছেন না, একথা সাফ জানিয়ে দেন রাজবর।