ছবি- প্রতীকি

জয়পুর: জাতপাতের রাজনীতিতে বাদ যাচ্ছেন না হনুমানও। হনুমান দলিত ছিলেন, এমনটাই দাবি করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আর সেই বক্তব্যের জেরেই তাঁর বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে রাজস্থানের একটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠন।

রাজস্থানে বিধানসভা ভোটের প্রচারে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন যোগী। মালপুরা কেন্দ্রে এক জনসভায় বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘হনুমানই ছিলেন দলিত। তিনি ছিলেন একজন বনবাসী। অনেক বঞ্চনা করা হয়েছিল তাঁকে। রাম যখন ছিলেন বনবাসে, তখন আবার রাক্ষসদের হাত থেকে স্থানীয় আদিবাসীদের বাঁচাতে এগিয়ে এসেছিলেন হনুমানই। ত্রেতা যুগে যে কাজটা করেছিলেন রাম।’’

এর আগে মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপালেও একটি জনসভায় কংগ্রেস নেতা কমলনাথের মন্তব্যের বিরোধিতা করতে গিয়ে মুসলিম ভোটের আশা ছেড়ে হিন্দু ভোট সংহত করার ডাক দিয়ে বিতর্ক তৈরি করেছিলেন যোগী।

জয়পুর থেকে কিছুটা দূরে মালপুরা বিধানসভা কেন্দ্রের আলোয়ারে দলিত ভোট টানার লক্ষ্যে যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, ‘‘আদিবাসী, বনবাসী, বঞ্চনার শিকার বজরঙ্গবলী (হনুমান) বরাবরই দেশের উত্তর থেক দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম সবক’টি জাতি ও সম্প্রদায়ের হাতে হাত মেলানোর চেষ্টা করেছিলেন। কারণ, সেটাই রামের ইচ্ছা ছিল। রামের সেই ইচ্ছা পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরাও থামব না।’’

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটেই প্রচারে যাচ্ছেন যোগী আদিত্যনাথ।