লখনউ: হিন্দুদের অপমান করেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তাও আবার রাম জন্মভূমি হিসেবে পরিচিত অযোধ্যায় গিয়ে। ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদিকার বিরুদ্ধে এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

জমে উঠেছে লোকসভা ভোটের প্রচার। পাল্লা দিয়ে চলছে রাজনৈতিক নেতাদের পরস্পরকে আক্রমণ এবং প্রতিআক্রমণ। নিত্যদিন নতুন নতুন অভিযগ শুনতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছে দেশবাসী। যা এখনও কয়েক মাস চলবে তাও অনুমান করা যাচ্ছে খুব সহজেই।

সেই ধারা বজায় রেখেই আক্রমণে সুর চড়ালেন যোগী আদিত্যনাথ। কংগ্রস সভাপতি রাহুল গান্ধীর পাশাপাশি তাঁর ভগ্নি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকেও নিশানা করলেন তিনি। রবিবার গাজিয়াবাদে এক নির্বাচনী প্রচারসভায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে হিন্দুত্ব নিয়ে আক্রমণ করেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন- ‘পাকিস্তানে গিয়ে বিরিয়ানি খেয়েছিলেন মোদীই’, কটাক্ষ প্রিয়াঙ্কার

শনিবার দলীয় প্রচারের উদ্দেশ্যে অযোধ্যায় হাজির ছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে নরেন্দ্র মোদীর আচমকা পাকিস্তান সফর নিয়ে কটাক্ষ করেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদিকা। অযোধ্যায় গেলেও রাম জন্মভূমিতে পা রাখেননি প্রিয়াঙ্কা। আর তা নিয়েই কংগ্রেস নেত্রীকে আক্রমণ করেছেন যোগী। তিনি বলেছেন, “গতকাল প্রিয়াঙ্কা গান্ধী অযোধ্যায় গিয়ে হিন্দুদের অপমান করেছেন। তিনি রাম জন্মভূমিতে যাননি। কেন গেলেন না জানতে চাওয়ায় তিনি বলেছেন, বিতর্কিত জায়গা বলে তিনি জাননি।” প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর এই আচরণ অপমানজনক এবং এতে এক শ্রেণীর মানুষের মনে হতাশা জন্মেছে বলে দাবি করেছেন যোগী আদিত্যনাথ।

গত কয়েক বছরে বিভিন্ন মন্দিরে গিয়ে পুজো দিতে দেখা গিয়েছে কংগেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। যা নিয়ে তাঁকে আক্রমণ করেছিল বিজেপি নেতারা। যার পুরোভাগে ছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। একসময়ে হিন্দুত্ব বিরোধী স্লোগান তোলা কংগ্রেস নেতার মন্দিরে যাওয়া নিয়ে শুরু হয়েছিল কটাক্ষ।

সেই বিষয়টি নিয়ে এদিন ফের মুখ খুলেছেন যোগী। তিনি বলেছেন, “কংগ্রেস সরকার বলেছিল যে রাম এবং কৃষ্ণের কোনও অস্তিত্ব নেই। আমি কংগ্রেস নেতাদের কাছে জানতে চাইছি যদি কোনও অস্তিত্বই না থাকলে এখন কংগ্রেস নেতারা মন্দিরে যাচ্ছে কেন? কেন এই ভণ্ডামি?”