ভোপাল: লকডাউনের মধ্যে অনেক অদ্ভুত জিনিস দেখা গিয়েছে। কখনও রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছে ময়ূর, কোথাও রাস্তায় শুয়ে আছে চিতা বাঘ। তাই বলে হলুদ ব্যাঙ! এমন দৃশ্যও যে দেখা যাবে তা বোধ হয় ভাবা যায়নি।

এমনই আজব দৃশ্য দেখা গিয়েছে মধ্যপ্রদেশে। ইতিমধ্যেই সেই ছবি প্রকাস্যে এসেছে। বন দফতরের অফিসার প্রবীন কুমার সেই ভিডিও এয়ার করেছেন।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বেশ কয়েকটা হলুদ ব্যাঙ লাফিয়ে বেড়াচ্ছে, আর তাদের পরিচিত স্বরে ডাকছে।

মধ্যপ্রদেশের নরসিংহপুরে এই ব্যাঙগুলিকে দেখা গিয়েছে। ওই অফিসার জানিয়েছেন, এটা কোনও অস্বাভাবিক দৃশ্য নয়। বর্ষাকালে নাকি এভাবেই রঙ পরিবর্তন করে পুরুষ ব্যাঙেরা। আর তার উদ্দেশ্য হল মহিলা ব্যাঙদের আকৃষ্ট করা।

প্রবীন কাসোয়ান নামে ওই অফিসার আরও জানিয়েছেন, বর্ষাকালে প্রথ বৃষ্টির সময়ই এই ব্যাঙদের হলুদ হতে দেখা যায়। গ্রামের দিকে মাঠে এই দৃশ্য দেখা যায় বলেও জানিয়েছেন তিনি। এগুলিকে ইন্ডিয়ান বুল ফ্রগ বা ইন্দাস ভ্যালি বুল ফ্রগ বলা হয়।

স্বাভাবিকভাবেই এমন দৃশ্য দেখে অবাক নেটিজেনরা। অনেকেই ভেবেছেন, এর সঙ্গে করোনা ভাইরাসের কোনও সম্পর্ক নেই তো কিংবা পঙ্গপালের। তেমন কিছু নেই বলেই নিশ্চিত করেছেন ওই অফিসার। তিনি জানিয়েছেন, এটা কোনও অস্বাভাবিক ঘটনা নয়।

‘জেএমই সায়েন্স’ ওয়েবসাইট অনুযায়ী, বর্ষাকালে এভাবেই রঙ পরিবর্তন করে বুলফ্রগ। এরা যখন সবুজ থেকে হলুদে রঙ পরিবর্তন করে, তখন এদের ভোকাল স্যাকগুলো নীল রঙ ধারণ করে। মনে করা হয় উজ্জ্বল রঙের পুরুষ ব্যাঙেরা বেশি আকর্ষণীয় মহিলা ব্যাঙের কাছে।

ডেলি মেল বলছে, ভারতের এই বুলফ্রগ দেখা যায়, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, মায়ানমার, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কাতেও। এরা ভিজে জায়গায় থাকতেই বেশি পছন্দ করে। তবে উপকূলে নয়, এদের পছন্দ পুকুরের মত জায়গা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ