স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: হারিয়ে যাওয়া লোকসংস্কৃতি ও যাত্রাকে ফিরিয়ে আনতে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে জেলায় জেলায় শুরু হয়েছে লোকসংস্কৃতি ও যাত্রা উৎসব। শুক্রবার নন্দকুমারের বাসুদেবপুর মহারাজ নন্দকুমার হাইস্কুল ফুটবল ময়দানে উৎসবের সূচনা করেন কাঁথির সাংদ শিশির অধিকারী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোধায়ের অনুপ্রেরণায় জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের আয়োজনে, পশ্চিমবঙ্গ যাত্রা আকাদেমি, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসন ও নন্দকুমার পঞ্চায়েত সমিতির সহযোগিতায় এই যাত্রা উৎসব৷ আগামী ১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত উৎসব চলবে। প্রতিদিন বিকেল ৫ টা থেকে রাত্রি ৮ টা পর্যন্ত উৎসব প্রাঙ্গন খোলা থাকবে। বর্তমান সময়ে ডিজিটাল দুনিয়ায় হারিয়ে যেতে বিসেছে লোকসংস্কৃতি ও যাত্রার আসর। প্রাচীয় সংস্কৃতিকে ফিরিয়ে যুব সমাজের কাছে তুলে ধরতেই রাজ্য সরকারের এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন সাংসদ শিশির অধিকারী। প্রতিদিন তরজা, বাউল, যাত্রাপালা অনুষ্ঠিত হবে উৎসবে।

এদিন তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক সুকুমার দে, জেলাপরিষদের সভাধিপতি দেবব্রত দাস, নন্দকুমার পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি দীননাথ দাস, নাট্যকার সুরজিৎ সিনহা, স্থানীয় বিডিও মহম্মদ আবু তৈয়ব সহ অন্যান্যরা।