সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা : তিনি তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন। সদ্য যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। তৃণমূলে থাকার সময় দলবিরোধী পোস্টের অভিযোগে বারবার চমকে দিয়েছিলেন বোলপুরের সাংসদ। সেই তিনিই বিজেপির পক্ষে যাদবপুরের ভোটপ্রার্থী হয়েই আবারও চমক দিলেন। তবে এবার কোনও দলবিরোধী কাজের জন্য নয়। রেসলিং চ্যাম্পিয়ন ‘গ্রেট খলি’কে নিজের ভোট প্রচারে এনে চমক দিতে চলেছেন বিজেপি’র প্রার্থী অনুপম হাজরা।

২৬ তারিখ যাদবপুর কেন্দ্র থেকে লড়াই করার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দেবেন অনুপম হাজরা। মনোনয়ন জমা দেওয়ার জন্য শোভাযাত্রা শুরু হবে সকাল ১১টায়। সেই যাত্রাতেই উপস্থিত থাকবে ‘গ্রেট খলি’। অনুপমের নাকি তিনি বিশেষ বন্ধু। সেই সূত্রেই তিনি পাঞ্জাবের এই রেসলারকে বাংলায় তাঁর হয়ে ভোট প্রচারে আবেদন জানিয়েছিলেন। ‘বন্ধু’র আবেদনে সারা দিয়ে প্রচারে সম্মতি দিয়েছেন খলি। ওইদিন রানীকুঠির মোড় থেকে শুরু হবে শোভাযাত্রা। দুপুর দেড়টা নাগাদ মনোনয়ন জমা দেবেন তিনি। সবমিলিয়ে ঘণ্টাখানেক অনুপমের চমক দেওয়া প্রচারে থাকবেন ভারত থেকে WWE-এর মঞ্চ জয় করা চ্যাম্পিয়ন রেসলার খলি।

অনুপমের এই প্রচারকে পাত্তা দিতে নারাজ বিরোধীরা। যাদবপুর থেকে বামেদের হেভিওয়েট প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। তিনি বলেন , “চমক হতে পারে। কিন্তু সব চমকানো জিনিষ সোনা হয় না। মানুষ বোঝে মানুষের পাশে থাকার কথা। খলি বড় রেসলার হতে পারেন কিন্তু বাংলার মানুষের জন্য ওই চমক পর্যন্তই। যারা মানুষের পাশে থাকে তাদের পাশেই মানুষ থাকে। চমক দিয়ে বেশি এগোনো যায় না।” এদিকে তৃণমূলের পক্ষেও খলির চমককে কোনও ফ্যাক্টর হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে না। তারা মনে করছেন , ‘মানুষ হয়তো খলিকে দেখতে ভিড় জমাবেন রাস্তায় কিন্তু ভোট বাক্সে সেই ভিড় আদতে জমবে না।”

দল বিরোধী কাজ এবং ফেসবুকে নানা ধরনের পোস্ট করে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার অভিযোগে অনুপম হাজরাকে ৯ জানুয়ারি দল থেকে বহিষ্কার করেছিল তৃণমূল। এরপর তৃণমূলের প্রার্থী ঘোষণার দিনই বিজেপিতে যোগ দেন বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা। মুকুল রায়ের হাত ধরে দিল্লিতে পদ্ম পতাকা হাতে তুলে নেন তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত নেতা।

WWE বা ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্টের দানবীয় রেসলার The Great Khali অত্যন্ত পরিচিত মুখ। দলিপ সিং রাণা বা গ্রেট খলি আগে পাঞ্জাব স্টেট পুলিশের অফিসার হিসেবে কেরিয়ারের শুরু করেছিলেন। পরে চারটি হলিউড ও দুটি বলিউড সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। তারপরেই কয়েকটি মেগা সিরিয়ালও করেন। এরপর ২০০০ থেকে শুরু হয়ে যায় তাঁর দীর্ঘ রেসলিং-এর অভিযান। অল প্রো রেসলিং, নিউ জাপান প্রো রেসলিং, কনসেজো মুন্ডিয়াল দে লুচা লিব্রে, অল জাপান প্রো রেসলিং-এর পর একে একে সমস্ত রাস্তা জয় করার পর ২০০৭-এ ওয়ার্ল্ড হেভি ওয়েট চ্যাম্পিয়নশিপ জেতেন তিনি।