জেনেভা: বিভিন্ন দেশ লকডাউন তুলে নিচ্ছে। আবার কোনও দেশ চলছে শিথিল করার পথে। নতুন করে করোনা ছড়াচ্ছে। এই অবস্থায় ফের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করল, করোনা মহামারির সবচেয়ে ভয়াবহ সময়টাই এখনো আসেনি।

হু সতর্কীকরণের পরে আরও চিন্তা বিশ্ব জুড়ে। কারণ, একাধিক দেশ যেখানে করোনা নির্মূল হয়েছে বলে দাবি সেই দেশগুলিতে নতুন করে ছড়াচ্ছে ভাইরাস সংক্রমণ।

চিনে ফের করোনা ছড়িয়ে পড়ায়, ঘটনাস্থল পরিদর্শনে হু প্রতিনিধি দল বেজিং সফর করবেন। বেজিংয়েই সংক্রমণ এখন।

এছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশ ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশে লকডাউন শিথিল হওয়ার পরেই করোনা প্রবল গতিতে ছড়াচ্ছে। বাড়ছে মৃত্যু। বিবিসি রিপোর্টে উঠে আসছে এই তথ্য।

হু মহাপরিচালক বলেছেন, বিভিন্ন দেশের সরকার যদি সঠিক পদক্ষেপ না নেয় তবে সংক্রমণ বাড়বেই। বিবিসি রিপোর্টে বলা হয়েছে দু দিন আগেই ১ কোটি পেরিয়ে গেছে সংক্রমণ। ৫ লক্ষ ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, বিশ্ব জুড়ে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটি ৪১ লক্ষের বেশি। মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ৮ হাজার পার করেছে। সুস্থ হয়েছেন ৫৬ লক্ষের বেশি।

পরিসংখ্যানে সর্বাধিক বাজে পরিস্থিতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। এখানে মৃত ১ লক্ষ ২৮ হাজারের বেশি। ব্রাজিলে মৃত ৫৮ হাজার ৩০০ জনের অধিক। তৃতীয় স্থানে থাকা ইংল্যান্ডে মৃত ৪৩ হাজার ৫০০ জন পেরিয়ে বাড়ছে।

তবে ইউরোপীয়ান ইউনিয়ন নতুন করে আন্তর্জাতিক যোগাযোগ চালু করতে চলায় সংক্রমণ ছড়াবে আরও বলেই আশঙ্কা। বিবিসি জানাচ্ছে, সংক্রমণ রুখতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মূল বার্তা, “পরীক্ষা, ট্রেস, আইসোলেট এবং কোয়ারেন্টিন।”

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা