ছবি- প্রতীকী

টোকিও: পরপর ভেসে আসছে ভুতুড়ে জাহাজ৷তা থেকে ছড়াচ্ছে নানা গুজব৷ প্রশ্ন কোথা থেকে আসছে মৃতদেহ ভর্তি এই জাহাজ? জাহাজের মতো দেখতে হলেও এগুলো আদতে নৌকা৷ ভিতরে আছে মৃতদেহের সারি৷

জাপানের উত্তরাঞ্চলের সমুদ্র উপকূলে আরও একটি মৃতদেহ বোঝাই নৌকা ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেল। এগুলোকে ভুতুড়ে জাহাজ বলা হয়। চলতি মাসে এমন মোট চারটি নৌকা ভেসে এসেছে৷ আর চলতি বছরে এই ধরনের ৫৯টি ভুতুড়ে জাহাজ জাপান উপকূলে ভিড়েছে৷ধারণা করা হচ্ছে, উত্তর কোরিয়া থেকে ভেসে এসেছে এই অভিশপ্ত জলযান৷

পড়ুন: গভীর সমুদ্রে দেখা মিলল ভুতুড়ে জাহাজের!

জাপানের উত্তরাঞ্চলের আকিতা উপকূলে ভাঙাচোরা একটি নৌকা ভাসতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ পুলিশ পরে সেই নৌকা থেকে আটটি মৃতদেহ উদ্ধার করে। বেশির ভাগ মৃতদেহ পচে গলে গিয়েছিল, যা থেকে ধারণা করা যায় অনেক দিন ধরেই মৃতদেহ নিয়ে নৌকাটি সমুদ্রে ভাসছে৷

নৌকার গঠন ও মাস্তুল দেখে সেটিকে কোরীয় রীতিতে তৈরি বলে মনে করা হয়েছে৷ পরে সেই নৌকায় মিলেছে উত্তর কোরিয়ায় তৈরি সিগারেটের প্যাকেট৷ এরপরেই ধরে নেওয়া হয় উত্তর কোরিয়া থেকে মৃতদেহ বোঝাই হয়ে জাপানের উপকূলে বেসে এসেছে জলযানটি৷

পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে ভুতুড়ে বিশ্ববিদ্যালয়, মাটির তলায় সাত হাজার কবর

গত সপ্তাহে জাপানের সাদো দ্বীপের কাছ থেকে একটি নৌকা উদ্ধার হয়েছিল। সেটিতে দুটি মৃতদেহ পাওয়া যায়৷ নভেম্বর মাসের শুরুর দিকে জাপানের সমুদ্রসীমায় উত্তর কোরিয়ার আরেকটি নৌকা ডুবে যায়। পরে জাপানের কোস্টগার্ড তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়৷ কিন্তু নৌকায় থাকা ১৫ জনেক খোঁজ পাওয়া যায়নি। পর পর মৃতদেহ ভর্তি জলযান জাপানের উপকূলে ভেসে আসছে দেখে চিন্তিত সরকার৷ বিশেষ নির্দেশ জারি করে কোস্টগার্ড ও পুলিশকে সতর্ক করা হয়েছে৷

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, উত্তর কোরিয়ার খাদ্য ঘাটতি চলছে৷ সেদেশের লাগোয়া উপকূলে মিলছে না মাছ৷ বেশি মাছের আশায় দূর সমুদ্রে পাড়ি জমাচ্ছেন অনেকে। যে সব কাঠের নৌকা নিয়ে উত্তর কোরীয় মৎস্যজীবীরা উত্তাল সমুদ্রে যাচ্ছেন সেই নৌকা তেমন উপযোগী নয়। ফলে দূর সমুদ্রে নৌকার ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ছে৷ ফেরার উপায় থাকছে না৷ খাদ্য ও পানীয়ের অভাবে নৌকার ভিতরেই মৃত্যু হচ্ছে মৎস্যজীবীদের৷