স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ফাঁদ পেতেছিলেন বনদফতরের আধিকারিকরা৷ অভিযান সফল হল৷ জালে ধরা পড়ল কোটি টাকা মূল্যের চোরাই কাঠ৷ নাগাল্যাণ্ড থেকে বেঙ্গালুরু পাচার হয়ে যাচ্ছিল বলে খবর৷ ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে এই অভিযান চালানো হয়৷ ঘটনার সঙ্গে যুক্ত সন্দেহে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷

আটক করা হয়েছিল কাঠপাচারের লরিটিকে৷ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সোমবার সকালে রাজগঞ্জ ব্লকের করোতোয়া ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে ওত পেতে ছিলেন বন দফতরের টাস্কফোর্সের কর্মীরা। ১৪ চাকার লরি দাঁড় করিয়ে তল্লাশি শুরু করেন আধিকারিকরা৷ উদ্ধার হয় প্রচুর পরিমাণে কাঠ৷

এদিকে, টাস্কফোর্সের প্রধান সঞ্জয় দত্ত জানান লরিতে থাকা দুইজনকে কাগজপত্র দেখতে নির্দেশ দেওয়া হলেও, কোনও বৈধ কাগজ তাঁদের কাছে ছিল না৷ সাথে সাথে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়। এরা অন্ধ্রপ্রদেশের বাসিন্দা। গাড়ি সমেত কাঠ উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয়৷ অভিযানে প্রায় ৫০ লক্ষেরও বেশি টাকার চোরাই শাল ও সেগুন কাঠ ও একটি লরি বাজেয়াপ্ত করেছে বেলাকোবা বনদফতর৷