নয়াদিল্লি: আবারও বিজেপি নেতার নিশানায় দিল্লির শাহিনবাগের আন্দোলনকারীরা। সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীদের নিশানা করে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা তরুণ চুঘের মন্তব্য, ‘দিল্লিকে আমরা সিরিয়া হতে দিতে পারি না’। একইসঙ্গে শাহিনবাগে আইন ভেঙে কেন্দ্রীয় আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলছে বলে অভিযোগ করেন ওই বিজেপি নেতা।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কেন্দ্র-বিরোধী প্রতিবাদ ক্রমেই মাথাচাড়া দিচ্ছে। বিজেপি বিরোধী একের পর এক রাজ্যে সিএএ বাতিলের দাবিতে আন্দোলন জোরদার হচ্ছে। দিল্লিতেও ডিসেম্বর মাসের মাঝামাঝি থেকে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন মহিলারা। সামনেই দিল্লির বিধানসভা নির্বাচন। ভোট প্রচারে বেরিয়ে বিজেপি নেতারা প্রায় প্রতিদিনই নিশানা করছেন শাহিনবাগের আন্দোলনকারীদের।

অমিত শাহ, প্রবেশ ভার্মাদের পর এবার বিজেপি নেতা তরুণ চুঘের নিশানায় দিল্লির জামিয়া নগরের আন্দোলনকারীরা। শাহিনবাগের আন্দোলনকারীরা দিল্লিবাসীর মনে ভয় ঢোকানোর চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই বিজেপি নেতা। দিল্লির আইনশৃঙ্খলার পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ করার কথা জানিয়ে ওই বিজেপি নেতা আরও বলেন, ‘দিল্লিকে কোনমতেই সিরিয়া হতে দেওয়া যাবে না। এখানে আইসিসি মডিউল তৈরি হতে দেব না, যেখানে মহিলা ও শিশুদের ব্যবহার করা হয়। আমরা কিছুতেই এটা ঘটতে দেব না।’

দিল্লির শাহিনবাগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে একটানা আন্দোলন চলছে। আন্দোলনের জেরে অবরুদ্ধ হয়ে রয়েছে রাস্তা। দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লি, নয়ডাগামী রাস্তা বন্ধ থাকায় প্রতিদিনই বিপাকে পড়ছেন সাধারণ মানুষ। ঘোর সমস্যায় পডেছেন অফিসযাত্রী ও স্কুলপড়ুয়ারা। ঘুরপথে যাতায়াতে অতিরিক্ত সময় লাগায় ক্রমেই ক্ষোভ বাড়ছে দিল্লির একাংশের বাসিন্দাদের মধ্যে।

এদিকে, শাহনিবাগে সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারীদের এর আগেও নিশানা করেছেন বিজেপির তাবড় নেতা-মন্ত্রীরা। আন্দোলনকারীদের নিশানা করে বিজেপি সাংসদ প্রবেশ ভার্মার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও খুন করানোর হুমকিরও অভিযোগ ওঠে। বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের নজরে আসতেই ভার্মাকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এমনকী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও আন্দোলনকারীদের নিশানা করে উত্তেজক মন্তব্য করেছেন।

এই প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, ‘৮ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে ইভিএমে এমনভাবে বোতাম টিপুন, যাতে আপনার ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটে। যদি বিজেপিকে ভোট দেন, তাহলে দেশে অসংখ্য শাহিনবাগের মতো ঘটনা আটকে দেওয়া যাবে।’ যদিও এই মন্তব্যের জন্য শাহকে নোটিশ পাঠায়নি কমিশন।