প্রদ্যুত দাস, জলপাইগুড়ি: প্রায় দিনই চা বাগানের মদ, জুয়া ও কুসংস্কারের অভিযোগ আসে। এই বিষয়গুলি ঠেকাতে নয়া উদ্যোগ নিল জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ। চা বাগান এলাকায় থেকে অভিযোগ আসে মদ খেয়ে বাড়িতে অশান্তি করছে চা বাগানের শ্রমিকেরা। অন্যদিকে জুয়া আরও একটি বড়ো সমস্যা চা বাগানে শ্রমিকদের৷ এছাড়াও রয়েছে কুসংস্কার।

ডুয়ার্স সহ একাধিক চা বাগান এলাকায় ডাইনি সন্দেহে মেরে ফেলার খবর মাঝে মধ্যেই পাওয়া যায়। এই সব ঘটনা রুখতে পুলিশ মহিলা বাহিনী তৈরি করলেন শহর লাগোয়া করলা ভ্যালী চা বাগানে। এদিন বাগানের কারখানায় কোতোয়ালি থানার আই বিশ্বাশ্রয় সরকারের নেতৃত্ব বৈঠক হয়। বৈঠক থেকে মহিলাদের মদ ও জুয়োর প্রতিবাদ করার জন্য রুখে দাড়াতে বলেন। এছাড়াও চা বাগানের মহিলাদের নিয়ে বিশেষ দল গঠন করা হয়৷ সেই দল চা বাগানের অসামাজিক কাজ কর্ম রুখবে বলে জানা গিয়েছে।

হাড়িয়া বা মদের আসর, জুয়ার আসর যে সব এলাকায় চলবে, সেই খবর গোপন সূত্রে থানায় জানানো নির্দেশ দেন পুলিশ। অভিযোগ পেলেই পুলিশ হানা দেবে ওই সব চা বাগানের এলাকায়। শুধু তাই নয় যে চা শ্রমিক ফোনে জানাবেন তার নামও গোপন রাখবে পুলিশ। থানায় ফোন নম্বর সহ পুলিশ আধিকারিকদের ফোন নম্বর তুলে দেওয়া হয় শ্রমিকদের।

এছাড়াও সাপে ছোবল, জ্বর সহ অন্যান্য রোগ হলে কোন ওঝা বা তান্ত্রিকের কাছে না নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়৷ যেতে হবে চিকিৎসকের কাছে এই বার্তাই দেওয়া হয় এদিনের কর্মসূচিতে। অচেনা ফোন নম্বরের প্রলোভনে পড়ে কেউ বাইরে কাজে যাবেন না এই বার্তাও দেওয়া হয়।

আই সি বিশ্বাশ্রয় সরকার বলেন, ‘‘মহিলাদের দিয়েই আমরা চা বাগানে মদ, জুয়া ও কুসংস্কার বন্ধ করব। এই কারণে মহিলাদের রুখে দাঁড়াতে বলা হয়েছে। এছাড়া মহিলাদের নিয়ে আমরা মহিলা বাহিনী গঠন করলাম।’’