প্রতীকী ছবি

তিরুঅনন্তপুরম: শহরের রাস্তায় জ্যান্ত পুড়িয়ে মারা হল এক মহিলা পুলিশ কর্মীকে৷ শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়৷ অসহ্য যন্ত্রনায় কাতরাতে কাতরাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই মহিলা পুলিশ কর্মীর৷ এই ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ বর্তমানে পুলিশি হেফাজতে আসে সে৷

আরও পড়ুন: ২৮ বছর পেরিয়ে রাজ্যসভা থেকে আড়ম্বরহীন বিদায় মনমোহন সিংয়ের

শিউরে ওঠার মতো ঘটনাটি কেরলের আলাপ্পুঝা জেলার৷ মৃতার নাম সোময়া পুস্করন৷ ৩৪ বছর বয়স৷ তাঁর তিন সন্তান রয়েছে৷ সোময়ার হত্যাকারী নিজেও একজন পুলিশ কর্মী৷ তবে কী কারণে সে সোময়াকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারল তা স্পষ্ট নয়৷ তদন্তে সেটা জানার চেষ্টা চলছে৷ পুলিশ জানিয়েছে, ডিউটি শেষ করে সোময়া বাড়ি ফিরছিল৷ তখনই হামলা করে অভিযুক্ত৷

অন্যান্য দিনের মতো স্কুটিতে করে বাড়ি ফিরছিলেন সোময়া৷ অভিযুক্ত পুলিশ কর্মী আজাজ গাড়ি করে তাঁর পিছু নিচ্ছিল৷ বাড়ির কাছে আসতেই সোময়ার স্কুটিতে সজোরে ধাক্কা মারে সে৷ মাটিতে মুখ থুবড়ে পড়ে সোময়া৷ হাতে পায়ে গুরুতর চোট পায়৷ আজাজকে দেখে পালানোর চেষ্টা করে সোময়া৷ কিন্তু ওই পুলিশ কর্মী সোময়াকে ছুরি দিয়ে আহত করে৷ পরে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়৷

আরও পড়ুন: ২০২২-এ উত্তরপ্রদেশে সরকার গঠন করবে পিএসপি : শিবপাল সিং যাদব

ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সোময়ার৷ পুলিশ তদন্তে নেমে আজাজকে গ্রেফতার করে৷ সোময়াকে খুন করার সময় সে নিজেও আহত হয়৷ তাঁর শরীরের বেশ কিছু জায়গা পুড়ে যায়৷ জেলার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে৷ পুলিশ তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে৷