টেনশন, মানসিক অবসাদ কমানো সহ হার্ট ভালো রাখার এক অব্যর্থ ওষুধ হল প্রাণ খোলা হাসি।

নিয়ম করে হাসার জন্য লাফিং ক্লাসেরও চল হয়েছে। কিন্তু কোনও কিছুই যে অতিরিক্ত ভালো নয় তা আবার প্রমাণ করে দিল চিনের গুয়াংডং প্রদেশের গুয়াঞ্জু দক্ষিণ রেল ষ্টেশনের একটি ঘটনা।

এই ষ্টেশনে ট্রেনের ভিতরে এক মহিলা যাত্রী এতটাই জোরে হাসছিলেন যে, তার দাঁতের চোয়ালটি স্থানচ্যুত হয়ে যায় এবং লক হয়ে যায়।

সে এক বিপত্তি !

ট্রেনে এক চিকিৎসক দিলেন। তিনি হন পরিত্রাতা। চোয়াল লক হয়ে যাওয়ায় যুবতি না পারছিলেন কথা বলতে, না পারছিলেন মুখ দিয়ে কোনও আওয়াজ করতে। এতে হতভম্ব হয়ে যান সহযাত্রীরা।

এরপর মেডিকেল সাহায্যের জন্য প্রচার হয়। সেটা শুনে ওই যুবতির কাছে যান ডাক্তার ওয়েনশেং।

তিনি বলেন, যুবতির মুখ থেকে লালা গড়িয়ে পড়ছিল। দেখে তিনি ভাবেন ওর স্ট্রোক করেছে। রক্তচাপ মেপে দেখে তেমন ইঙ্গিত মেলেনি।

পরে ওই যুবতির চোয়ালটি স্থানচ্যুত হয়েছে বোঝেন চিকিৎসক। তিনি চোয়াল ঠিক করে দেন।

ওই মহিলা যাত্রী জানিয়েছেন, এর আগেও প্রেগন্যান্সির সময়ে বমি করতে গিয়ে তাঁর একইরকম বিপত্তি হয়েছিল ।