অক্সফোর্ড: বাড়ির ভিতরে পড়ে রয়েছে মহিলার দেহ, আর তাঁর গলায় পেঁচিয়ে রয়েছে পেল্লাই সাইজের এক অজগর। এমনই রোমহর্ষক দৃশ্যের সাক্ষী রইল আমেরিকার ইন্ডিয়ানার অক্সফোর্ড।

বুধবার রাতে বেনটন কাউন্টির পুলিশ আধিকারিকদের কাছে ৯১১-এ ফোন আসে। পুলিশ পৌঁছলে অচৈতন্য অবস্থায় লরা হার্স্ট(৩৬)-কে পাওয়া যায়।

চিকিৎসকরা এসে বহু চেষ্টা করলেও প্রাণে বাঁচানো যায় নি।

লরার গলায় তখনও আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে ছিল পাইথনটি। এই পাইথনটির বাস দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার। পৃথিবীর সবথেকে লম্বা এই পাইথনটি লম্বায় প্রায় ২০ ফুট হয়। ওজন হয় প্রায় ১৬০ কেজি।

পুলিশ সূত্রে খবর, লরার বাড়ি এবং তদসংলগ্ন অঞ্চলে প্রায় ১৪০টি সাপের হদিশ মিলেছে। সপ্তাহে অন্তত দু দিন নিজের বাড়িতে ঘুরতে আসতেন লরা।

বাড়িটির মালিক বেন্টন কাউন্টি শেরিফ ডোনাল্ড মুনসন সাংবাদিকদের সঙ্গে এই বিষয়ে কোনও কথা বলতে চাননি।

ইন্ডিয়ানা স্টেট পুলিশের পক্ষ থেকে সার্জেন্ট কিম রাইলি জানান, ‘ওই বাড়িতে কেউ থাকত না। বাড়িটা হয়ত সাপেদের রাখার জন্যেই বানানো হয়েছিল।’

রাইলি আরও জানান, ‘লরা হয়ত সাপেরা কেমন আছে তা দেখতেই এসেছিলেন। কিন্তু তাঁর পরিণতি যে এমন হবে তা ভাবতে পারেনি।’

পুলিশ সূত্রে খবর, প্রাথমিক ভাবে মনে অজগর গলায় জড়িয়ে যাওয়াতেই লরার মৃত্যু হয়েছে। তবে, এখনও অটোপসি রিপোর্ট হাতে পাওয়ার অপেক্ষায় পুলিশ।