নয়াদিল্লি: সকলের সমান ন্যায়বিচার ছাড়া কোনও দেশ বা সমাজ নিজেদের সামগ্রিক বিকাশে করতে পারবে না, এমনই জানিয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

শনিবার আন্তর্জাতিক বিচারিক সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “সরকার অনেকক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন এনেছে, সে মিলিটারিতে মহিলা নিয়োগ হোক বা ফাইটার পাইলট হিসেবে নিয়োগ অথবা রাতে খনিতে কাজের স্বাধীনতার ক্ষেত্রেও পরিবর্তন আনা হয়েছে”।

এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, সংবিধান পুরুশ-মহিলা সমান অধিকারের বিষয়টি উল্লেখ রয়েছে। বিশ্বের মধ্যে ভারত এমন একটি দেশ যেখানে কয়েকটি দেশের মধ্যে ভারত স্বাধীনতার পর থেকেই মহিলাদের ভোটের অধিকার দিয়েছে।

মোদী জানিয়েছেন, স্বাধীনতার ৭০ বছর পরে মহিলাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণে সর্বাধিক হয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, “বর্তমানে ভারত বিশ্বের এমন একটি দেশ যেখানে মাতৃত্বকালীন ছুটিতেও বেতন চালু থাকে”।

উল্লেখ্য, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পুরুষদের থেকে মহিলাদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। মোদী আরও বলেন, সংবিধান জীবনের গাড়ি, সংবিধান যুগ যুগ ধরে অনুপ্রেরণা দিয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ