গায়ানা: প্রথম ম্যাচে গোল্ডেন ডাক। দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ৪ রান। ধোনির অবর্তমানে দলের প্রধান উইকেটরক্ষকের দায়িত্বভার যখন তাঁর কাঁধে, তখন টি-২০ সিরিজের প্রথম দু’ম্যাচে পন্তের আউট হওয়ার ধরন দেখে নাক সিঁটকেছিলেন অনুরাগীরা। সাংবাদিক সম্মেলনে তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানকে নিয়ে দলনায়ক কোহলিকে নানা অপ্রীতিকর প্রশ্নেরও মুখোমুখি হতে হয়েছিল।

কিন্তু সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ টি-২০ ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন ঋষভ। শুধু ৪২ বলে ৬৫ রানের অপরাজিত ইনিংসই নয়, অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে তাঁর ১০৬ রানের মূল্যবান পার্টনারশিপ দলকে সহজেই এগিয়ে নিয়ে গেল লক্ষ্যমাত্রার দিকে। আর ম্যাচ জেতানো ইনিংসের সঙ্গে সঙ্গে মঙ্গলবার জর্জটাউনে অচিরেই মহেন্দ্র সিং ধোনির এক রেকর্ড ভেঙে দিলেন তরুন পন্ত। ভারতীয় উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে ২০১৭ বেঙ্গালুরুতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ধোনির ৫৬ রানের ইনিংস টি-২০ ক্রিকেটে এতদিন যাবৎ ছিল সর্বোচ্চ। মঙ্গলবার সেই নজির ভেঙে নয়া নজির সেট করলেন পন্ত।

আরও পড়ুন: স্বার্থ-সংঘাত ইস্যুতে দ্রাবিড়কে নোটিশ, বিসিসিআই’কে তুলোধনা মহারাজের

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ছুঁড়ে দেওয়া ১৪৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে এদিন ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ‘মেন ইন ব্লু’। ব্যাট হাতে ভারতের ম্যাচ জয়ের কারিগর অধিনায়ক কোহলি ও ঋষভ পন্ত। চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে গত দু’ম্যাচের ব্যর্থতা কাটিয়ে দলনায়ককে যোগ্য সঙ্গত দেন পন্ত। তাঁর ৪২ বলে ৬৫ রানের ইনিংসে এদিন সাজানো ছিল ৪টি ছক্কা ও সমসংখ্যক চারে। অর্ধশতরান পূর্ণ করে (৪৫ বলে ৫৯) কোহলি আউট হলেও দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন পন্ত। ২৭ রানে প্রথম ২ উইকেট খোয়ানোর পরেও কোহলি-পন্তের জুটিতেই ম্যাচ জয় অনেকটাই সহজ হয়ে যায় ভারতের জন্য।

আরও পড়ুন: বিরাট-পন্তের ব্যাটে ৩-০ ক্যারিবিয়ান ‘বধ’ ভারতের

‘চাপ না দিয়ে বরং নিজেকে মেলে ধরার জন্য পন্তকে আরও সময় দেওয়া উচিৎ। অভিষেকের পর ও অনেকটা পথ অতিক্রম করেছে। দল হিসেবে আমরা আরও পেশাদার হতে চাই।’ পন্তের ব্যাটিংয়ের প্রশংসা করে ম্যাচ জয়ের পর জানান কোহলি।