কেপটাউন: COVID-19 যখন বিশ্বের মানুষকে ঘরবন্দি করেছে তখন ওয়েলসের ছাগল হোক কিংবা ইতালির বুনো শূকর, করোনা ভাইরাসের আবহে গোটা প্রাণীকূল মানুষবিহীনভাবে বেশ ভালোই মানিয়ে নিয়েছে।

এমনকি সিংহও নিভৃতে শান্তি উপভোগ করছে, এইরকমই মনবিগলিত দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের নতুন কিছু ছবি প্রকাশ্যে এসেছে।

ছবিগুলিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, একদল সিংহ গোটা রাস্তা জুড়ে আরাম করে কেউ ঘুমোচ্ছে বা আরাম করছে। সবেচেয়ে অবাক করা ঘটনা ফটোগ্রাফার রিচারড সোরির উপস্থিতি তাঁদের এতটুকুও শান্তিভঙ্গ করতে পারেনি। গোটা পৃথিবীকে উপেক্ষা করে নির্বিকার ও নির্লিপ্তভাবে জীবনের স্বাদগ্রহণে ব্যস্ত ওই সিংহের দল।

ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের তরফে একটি ট্যুইটে জানানো হয়েছে, “ওই সিংহের দল সাধারণত কেম্পিয়ানা কনট্র্যাকচুয়াল পার্কের বাসিন্দা যা ক্রুগারের পর্যটকেরা দেখেন না, এদিন বিকলে তাঁরা অরপেন রেস্ট ক্যাম্পের বাইরের অংশে টার রোডে গোটা রাস্তা জুড়ে শুয়েছিল”।

অন্যান্য স্বাভাবিকদিনে, পর্যটকবেষ্টিত থাকে এই অঞ্চল তবে করোনা লকডাউনের জন্য মার্চ মাসের ২৫ তারিখ থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্ক।

ক্রুগারের মুখপাত্র জানিয়েছেন, “স্বাভাবিক সময়ে দিনেরবেলায় রাস্তায় শুয়ে থাকার ছবিটা ভীষণ আস্বাভাবিক কারণ ট্র্যাফিক”।

বিশ্বের মানুষের কাছে রাস্তার মাঝের এই ছবি অবাক করা হলেও তিনি জানিয়েছেন প্রাণীদের ব্যবহারে বিশেষ কোনও পরিবর্তন আসেনি। তবে তাঁরা সাধারণত পর্যটক ঘেরা জায়গা এড়িয়ে চলে এবং মানুষশূন্য হলেই সেই জায়গা নিয়ে নেয়।

মানুষকে মনে রাখতে হবে কেম্পিয়ানা কনট্র্যাকচুয়াল পার্ক এখনও বেশিরভাগই এখনও বুনো। মানুষের উপস্থিতি ছাড়া বনজীবন সবচেয়ে বেশি সক্রিয়”।

প্রথমে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা হলেও এপ্রিল মাসের ৮ তারিখ অন্ততপক্ষে চলতি মাসের শেষ অবধি লকডাউন চলবে বলেই জানা গিয়েছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প