মুম্বই: লোসকভা নির্বাচনে মহারাষ্ট্রে সর্বাধিক আসনে জয়ী হবে বিজেপি। এমন আত্মবিশ্বাসের কথাই শোনাচ্ছে তারা। গেরুয়া শিবিরকেই তারই জবাব দিল একসময় বিজেপির সঙ্গী শিব সেনা।

বিজেপি বারবার দাবি করছে ৪৮টি আসনের মধ্যে ওই রাজ্যে ৪৩টিতে জয়ী হবে তারা। আর তারই জবাবে শিব সেনার বলছে, ‘ইভিএম থাকলে লন্ডন, আমেরিকাতেও ফুটবে পদ্ম।’ একই সঙ্গে অযোধ্যার রাম মন্দির নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে তারা।

মুখপত্র ‘সামনা’য় তারা প্রশ্ন তুলেছে, কেন অযোধ্যায় পদ্ম ফুটছে না?

মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যে লোকসভা ভোটের আসন ভাগাভাগি সেরে ফেলেছেন উদ্ধব ঠাকরেরা। তাতে বিজেপিকে কম আসনেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে। তারপরেই বিজেপিকে আক্রমণের কোনও সুযোগই ছাড়ছেন না উদ্ধব ঠাকরে। শিবসেনার মুখপত্র সামনায় বিজেপিকে আক্রমণ করে লেখা হয়েছে,’ইভিএমে ভোট করানো নিয়ে গলা ফাটাচ্ছে বিজেপি। আর সেই ইভিএমের বলে ভর করেই ফের ক্ষমতায় ফেরার আস্ফালন করছে তারা।’‌

অবিজেপি দলগুলির মহাজোটই প্রথম লোকসভা ভোটে ইভিএম ব্যবহারের বিরোধিতা শুরু হয়েছে। কংগ্রেস, টিডিপি, এনসিপি, থেকে শুরু করে একাধিক অবিজেপি রাজনৈতিক দল ইভিএমে কারচুপির অভিযোগ তুলেছেন। লোকসভা ভোট ব্যালটে করার দাবি জানিয়ে ইতিমধ্যেই তাঁরা নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছেন।

অবিজেপি রাজনৈতিক দলগুলির এই দাবিতে শরিক হয়েছে শিবসেনাও। ইভিএমে বিজেপি যে কারচুপি করছে তাতে সামিল হয়েছে শিবসেনাও।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।