কলকাতা: এ যেন টি টোয়েন্টি ম্যাচে মরণ বাঁচন রান তাড়া করার খেলা৷ শীতের বাংলায় উত্তরকে কড়া চ্যালেঞ্জ দক্ষিণের৷ হু হু করে নেমেছে তাপমাত্রা৷ একটু শীতল হাওয়ার জন্য মুখিয়ে থাকা মহানগরীর হাওয়াতে শিরশিরানি৷ আলিপুর হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, গত পাঁচ বছরের মধ্যে জানুয়ারির চলতি সপ্তাহ সর্বাপেক্ষা শীতল৷ দক্ষিণের শীত তাড়া করছে উত্তরের শীতল হাওয়াকে৷ পরিসংখ্যান দেখলে সত্যি চমকে উঠতে হয়,

দক্ষিণবঙ্গের পরিস্থিতি:
• পানাগড় ৫.২
• শ্রীনিকেতন ৫.৮
• বর্ধমান ৭.৮
• বাঁকুড়া ৮.৪ ডিগ্রি৷ * (সব তাপমান ডিগ্রি সেলসিয়াসে)

উত্তরবঙ্গের শীত:

• মালদহ ৭.৪
• কোচবিহারের ৭.৬
• জলপাইগুড়ি ৮.৬ * (সব তাপমান ডিগ্রি সেলসিয়াসে)

আবহাওয়া রিপোর্ট বলছে, কাঞ্চনজঙ্ঘার কোলে থাকা শৈলশহর দার্জিলিং শহরের তাপমাত্রা শূন্য ডিগ্রি থেকে ৮.০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠা নামা করেছে৷ প্রায় একইরকম ঠাণ্ডায় অপর দুই শৈলশহর কার্শিয়াং ও কালিম্পংয়েও৷ চলতি শীত মরসুমে পাহাড়বাসী কি বরফ পড়া দেখতে পাবেন, সে বিষয়ে নিশ্চিত নন আবহবিদরা৷ অন্যদিকে রায়গঞ্জের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ঘোরাফেরা করছে ৭ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে৷

স্বাভাবিক কারণেই খুব প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বেরোচ্ছেন না কেউ৷ এই পরিস্থিতিতে সমস্যায় পড়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলির ক্ষুদে পড়ুয়ারা৷ শিক্ষক সংগঠনগুলির দাবি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে মূলত নিম্ন ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবার থেকেই ছেলেমেয়েরা পড়তে আসে৷ প্রয়োজনীয় শীতবস্ত্র না থাকায় খুবই কষ্ট হচ্ছে শিশুদের৷ পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি অজয় রায় চৌধুরী বলেন, “বিশেষ ছুটির জন্য শিক্ষাদফতর চিন্তাভাবনা করলে ভাল হয়।” যদিও এব্যাপারে পর্ষদের পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি৷

এদিকে তীব্র শীতের হাত থেকে শরীর গরম করতে আগুন জ্বালিয়ে তাপ নিতে গিয়ে পুড়ে মারা গেলেন এক বৃদ্ধা৷ শনিবার সন্ধ্যায় মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ থানার পানিশালা এলাকার সুকুরটোলা গ্রামে৷ মৃতার নাম বকিয়া খাতুন ( ৬৫)৷ অন্যদিকে রবিবার পূর্ব বর্ধমানের মেমারী থানার পুতুন্ডায় ডিভিসির সেচখাল সংলগ্ন লকগেটের কাছে ঝোপের মধ্যে এক অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করল পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে তাঁদের মনে হয়েছে তীব্র ঠান্ডায় ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

প্রতিবেশী রাজ্য সিকিমের রাজধানী তথা শৈলশহর গ্যাংটকের তাপমাত্রা ৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামল৷ উত্তর পূর্বের সিকিমকে টেক্কা দিয়েছে বিহারের গয়া৷ সেখানকার তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ২.৮ডিগ্রি সেলসিয়াসে৷