নয়াদিল্লি: গতকালই দেশে ফিরে আসেন ভারতীয় সেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান৷ গত ২৭ ফেব্রুয়ারি সকালে পাক বিমান তাড়া করতে গিয়ে অধিকৃত কাশ্মীরের মাটিতে পড়ে ভারতের মিগ বিমান। পাক সেনা বন্দি করে ভারতের উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে। তারপর ৫৫ ঘণ্টা চরম উৎকন্ঠায় কাটে ভারতের।

অবশেষে শুক্রবার দেশে ফেরেন তিনি। কিন্তু তিনি ভারতের মাটিতে পা রাখার কয়েক মিনিট আগেই একটি ভিডিও প্রকাশ করে পাকিস্তান। যেখানে দেখা যাচ্ছে পাক সেনার প্রশংসা করছেন অভিনন্দন। এডিট করা ওই ভিডিওতে অন্তত ১৮ টি ‘কাট’ চোখে পড়বে সহজেই।

মনে করা হচ্ছে বায়ুসেনার কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে হস্তান্তরে দেরি হওয়ার এটাই অন্যতম কারণ। জানা গিয়েছে, পাকিস্তান অভিনন্দনকে নিয়ে ভিডিও তৈরি করছিল। এখানেই শেষ নয়৷ সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর একটি ট্যুইট থেকে জানা যাচ্ছে, পাকিস্তানে তার ওপর শারীরিক কোনও অত্যাচার করা না হলেও, চলেছে মানসিক অত্যাচার৷

গতকালই বায়ুসেনার বিশেষ বিমানে রাত ১১টার সময় দিল্লির পালম এয়ারপোর্টে নামে। সেখান থেকে সরাসরি অভিনন্দনকে নিয়ে চলে যাওয়া হয় বায়ুসেনার হাসপাতালে। রাতেই অভিনন্দনের বেশ কিছু মেডিক্যাল টেস্ট করানো হয়। হাসপাতালে ছিলেন তাঁর বাবা-মা। তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়৷

শনিবার দিল্লিতে আরআর হাসপাতালে তাঁর সঙ্গে দেখা করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন৷ পাকিস্তানে ঠিক কী অবস্থার মধ্যে তাঁকে পড়তে হয়েছিল, এমনসব আলোচনায় তাঁদের মধ্যে হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ পাশাপাশি তাঁর প্রতি পাকিস্তানের ব্যবহার নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে মনে করা হয়৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও