নয়াদিল্লি:  বিশ্বকাপে না থেকেও থাকবেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। এবার কারণটা খোলসা করে বলা যাক।

কাঁধের চোটের কারণে চলতি আইপিএলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি নিজেকে। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি দলে থাকার সুবাদে অধিনায়ক রবি অশ্বিনের পরামর্শ বিশ্বকাপে ব্যাপক সাহায্য করবে তাঁকে এবং তা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলার চেষ্টা করবেন তিনি, জানালেন আফগান স্পিনার মুজিব উর রহমান।

২০১৯ আইপিএলে মাত্র ৫ ম্যাচই খেলার সুযোগ পেয়েছেন এই আফগান স্পিনার। ১০.০৫ ইকোনমি রেটে ঝুলিতে মাত্র ৩ উইকেট। ইতিমধ্যেই প্লে-অফের যোগ্যতা অর্জনের প্রশ্নে ছিটকে গিয়েছে তাঁর দল কিংস ইলেভেন। কিন্তু সাফল্য না এলেও দ্বাদশ আইপিএল থেকে খালি হাতে ফিরছেন না মুজিব, বরং অশ্বিনের ইতিবাচক কিছু পরামর্শ আইপিএলে বিদায়বেলায় সঙ্গী তাঁর।

জাতীয় দলের একটি প্রোমশনাল ইভেন্টে বছর আঠারোর আফগান স্পিনারের জানান, ‘কিংস ইলেভেন ড্রেসিংরুমে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তাঁর থেকে পাওয়া গুরুত্বপূর্ণ টিপসগুলো বিশ্বকাপে কাজে লাগাতে পারব বলেই আমার বিশ্বাস। আইপিএল মরশুমে আমার কাঁধের চোট একটা বড়সড় সমস্যা হয়ে দেখা দিয়েছিল। কিন্তু এখন বিশ্বকাপের জন্য আমি সম্পূর্ণ ফিট।’

এমনকি সীমিত সুযোগে আইপিএলে এমন কিছু ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে তিনি আমনা-সামনা করেছেন, প্রতিপক্ষ হিসেবে বিশ্বকাপেও যাদের সামনে পাবেন মুজিব। অর্থাৎ আইপিএলের এই মহড়া মেগা ইভেন্টে যে তাঁকে সহায়তা করবে, জানাতে ভোলেননি ওয়ান-ডে ক্রিকেটে ৫১ উইকেটের মালিক। তবে আইপিএলের সূচিকে ব্যস্ত সূচি হিসেবেই বর্ণনা করেছেন তরুণ স্পিনার।

পাশাপাশি বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রশিদ খান ও মহম্মদ নবির উপস্থিতি আফগানিস্তানের স্পিন বিভাগকে মজবুত করবে বলেই মুজিবের বিশ্বাস। আফগান দলে এই স্পিন ত্রয়ীর প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা শক্তি রয়েছে। একইসঙ্গে নিজেদের মধ্যে আলোচনা তাদের পরিকল্পনা রূপায়নে সাহায্য করবে বলেই বিশ্বাস আফগান স্পিনারের। এমনকি তাঁর মতে, ২০১৫ অভিষেক বিশ্বকাপের তুলনায় আগগানিস্তান যে অনেক ভালো ফল করবে এবং প্রাথমিক হিসেবে সেমি ফাইনাল লক্ষ্য মুজিবের।