দুবাই: রেকর্ডের ছড়াছড়ি৷ তবু রেকর্ড বইয়ে নাম উঠল না৷ একটু হতাশ হলেও বছর কুড়ির উইল জ্যাকস ক্রিকেটবিশ্বকে হদিশ দিলেন নতুন তারকার৷

দুবাইয়ে আইসিসি’র অ্যাকাডেমিতে ল্যঙ্কাশায়ারের বিরুদ্ধে প্রাক মরশুম প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নেমে সারের তরুণ তুর্কি উইল জ্যাকস অভাবনীয় সব কাণ্ড ঘটান৷ এক ওভারের ছ’টি বলে ছ’টি ছক্কা মারা ছাড়াও মাত্র ২৫ বলে সেঞ্চুরি করে তাক লাগিয়ে দেন৷ তা সত্ত্বেও আইসিসি’র রেকর্ডে নাম উঠছে না তাঁর৷ কারণ টি-১০ ম্যাচটিকে অফিসিয়াল তকমা দেওয়া হয়নি৷ নাহলে দশ ওভারের ক্রিকেটে তো বটেই, যে কোনও ধরণের পেশাদার ক্রিকেটে এটিই হতো দ্রুততম শতরানের নজির৷

আরও পড়ুন: বিজেপিতে যোগ দিলেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন তারকা

কাউন্টি মরশুম শুরুর আগে সারে ও ল্যাঙ্কাশায়ার নিজেদের মধ্যে এই প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলতে নামে৷ প্রথমে ব্যাট করে সারে ১০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৬ রান তোলে৷ ২৫ বলে সেঞ্চুরি করা উইল জ্যাকস শেষমেশ ৩০ বলে ১০৫ রান করেন৷ তিনি মোট ৮টি চার ও ১১টি ছক্কা মারেন৷ স্টিফেন প্যারির এক ওভারে ছ’টি ছক্কা মারেন জ্যাকস৷

জবাবে ল্যাঙ্কাশায়ার ৯ উইকেটের বিনিময়ে মাত্র ৮১ রান তুলতে সক্ষম হয়৷৯৫ রানের বড় ব্যবধানে ম্যাচ জেতে সারে৷

আরও পড়ুন: আইপিএল শুরুর আগেই বিতর্কে বুমরাহ

ম্যাচটি অফিসিয়াল হলে ক্রিস গেইলের বিশ্বরেকর্ড ভাঙতেন জ্যাকস৷ ২০১৩ আইপিএলে ৩০ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন গেইল, যা পেশাদার ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত দ্রুততম শতরানের নজির৷ উইল জ্যাকস সম্প্রতি ইংল্যান্ড লায়ন্সের হয়ে ভারত সফরে এসেছিলেন৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।