নয়াদিল্লি : কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পর এবার কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ কাশ্মীর নয়, পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে এবার ভাবনা চিন্তা করুক পাকিস্তান৷ স্পষ্ট হুঁশিয়ারি দিলেন রাজনাথ৷ তাঁর বক্তব্য যদি নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদের মধ্যে কথা হয়, তবে পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়েই হবে৷ কারণ কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করার বিষয়টি পুরোপুরি ভারতের অভ্যন্তরীণ ইস্যু৷

হরিয়ানার পঞ্চকুলায় এক জনসভায় যোগ দিয়ে পাকিস্তানকে একহাত নেন রাজনাথ৷ যতদিন না পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদ প্রশ্রয় ও মদত দেওয়া বন্ধ করছে, ততদিন ইসলামাবাদের সঙ্গে কোনও ধরণের আলোচনায় বসবে না নয়াদিল্লি, জানিয়ে দেন রাজনাথ৷

আরও পড়ুন : ‘লোকসভায় শূন্য পেয়েও সিপিএম প্রশান্ত কিশোরের মত চিপ নিজেদের ব্রেনে লাগায়নি’

তাঁর মতে কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করা হয়েছে সেখানকার উন্নয়নের জন্য৷ এজন্য ভারত কাউকে জবাবদিহি করবে না৷ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সামনে কাশ্মীর নিয়ে দরজা ধাক্কিয়ে কোনও লাভ পাবে না পাকিস্তান, সেটা তারা যত তাড়াতাড়ি বুঝবে তত তাদের লাভ৷

এর আগে, লোকসভায় কংগ্রেসের এক প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন জম্মু কাশ্মীর ভারতের অংশ, তাহলে কেন তা অভ্যন্তরীণ বিষয় নয়? পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও আকসাই চিনও ভারতের অংশ৷ ভারতের কেন্দ্র সরকারের পূর্ণ অধিকার রয়েছে কাশ্মীর সম্পর্কে অন্যান্য রাজ্যের মত সিদ্ধান্ত নেওয়ার৷

আরও পড়ুন : জওহরলালের নাম সরিয়ে দেওয়া হোক মোদীর নাম, দাবি বিজেপি সাংসদের

লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী দাবি করেছিলেন ১৯৪৮ সাল থেকে কাশ্মীর ইস্যু পর্যবেক্ষণ করে আসছে রাষ্ট্রসংঘ৷ তাহলে কী করে এই বিষয়টি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় হয়? এই দাবিকেই পুরোপুরি নস্যাৎ করে দেন অমিত শাহ৷ এদিন তিনি বলেন জম্মু কাশ্মীর যেমন ভারতের অংশ, তেমনই পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও আকসাই চিন ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে ফেরাতে প্রাণ দিয়ে দেবে কেন্দ্র৷