ভোপাল : সারা দেশে অভূতপূর্ব জয়ের পর যে কটি রাজ্যে অন্যান্য দলগুলির অস্তিত্ব রয়েছে, সেই সব রাজ্যেই পদ্ম ফোটাতে মরিয়া ভারতীয় জনতা পার্টি। কোথায় কার কি খুঁত রয়েছে আতস কাঁচের নিচে ফেলে দেখা শুরু করেছে পদ্ম শিবির। এবার তাঁদের নিশানায় বিজেপি সরকারকে পরাজিত করে সরকারে আসা মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের তীর ছুঁড়লেন বিজেপি নেতা রাহুল কোঠারি। তাঁর অভিযোগ ভিআইপি কোটার সুবিধা নিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রীর পরিজনেরা।

ভিআইপি কোটার সুবিধা নিয়ে চিকিৎসা করিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের পরিজনেরা। এমনকি মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো তার কনভয়ে চড়ে গিয়েছেন মহাকালেশ্বর মন্দির দর্শনে। কনভয়ের সঙ্গে ছিল পুলিশ থেকে শুরু করে একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্সও। এই অভিযোগ তুলে তার দল রাজ্যপালের দ্বারস্থ হবেন বলে বৃহস্পতিবার সাফ জানান তিনি।

পড়ুন: এখন থেকে ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে তামিলনাড়ুর দোকানগুলি

রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেলের কাছে অভিযোগ জানাবে বিজেপি। একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, কমল নাথের ভাইপো উজ্জয়িনীর মহাকালেশ্বর মন্দির দর্শনের জন্য প্রশাসনের কনভয়, পুলিশ থেকে শুরু করে একটি সরকারি অ্যাম্বুলেন্সও নিয়েও যাত্রা করেছিলেন। যা রীতিমত আইন বিরুদ্ধ। আইন মতে এই সুবিধার অধিকারী হতে পারেন শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রী।

এবিষয়ে রাহুলকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, “রোগীদের যথা সময়ে অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা দেওয়া হয় না, কিন্তু যখন মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো মন্দির দর্শনে যান তখন ঠিক অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা পাওয়া যায়। আমরা এই বিষয়ে রাজ্যপালের কাছে অভিযোগ জানাব। এই সমস্ত টাকা কমল নাথের মাসহারা থেকে কাটতে হবে।”

বিজেপি নেতা অলোক সংজার বলেন, এই সুবিধাগুলি শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে। সুতরাং এ নিয়ে প্রশ্নের জায়গা থেকে যায় যে কেন তার পরিজনেরা এই সুবিধা গুলি পাবেন! এটা আইন বিরোধী। এটা ভুল।