তেলেঙ্গানা: বিতর্কে জড়ানো অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে তাঁর৷ আবারও নতুন তোপ দাগলেন তেলেঙ্গানার বিজেপি বিধায়ক টি রাজা সিং৷ এবার তাঁর নিশানায় বলিউড পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির নতুন ছবি পদ্মাবতী৷ মঙ্গলবার রাজা সিং-এর সদর্প ঘোষণা, এই সিনেমার স্ক্রিনিং যেসব প্রেক্ষাগৃহে হবে, সেখানে আগুন জ্বলবে৷ ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে পদ্মাবতীতে৷ এই অভিযোগে বেশ কয়েকদিন ধরেই উত্তাল দেশ৷ মূল অভিযোগ বিজেপির তরফ থেকে৷

সেকেন্দ্রাবাদে রাজস্থান রাজপুত সমবায়ের একটি জনসভায় নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে, তাঁর মন্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে পদ্মাবতী ছবিতে ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে৷ এই ঘটনা কোনওভাবেই মেনে নেওয়া যায়না৷ রাজপুত জাতির সম্মান নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে এই ছবি৷ ছবি মুক্তির পর যদি কোনওভাবে এই অভিযোগের সত্যতা মেলে, তবে আগুন জ্বলবে দেশে৷

বনশালির সমালোচনা করে বিজেপি বিধায়কের বক্তব্য মহিলাদের সম্মানহানি করছে এই ধরণের ছবি৷ শুধুমাত্র অর্থ উপার্জনের জন্যই এই ধরণের ছবি তৈরি হচ্ছে৷ হিন্দু ধর্মের অবমাননা করে এই ছবি তৈরির বিরুদ্ধে সকলের একসাথে রুখে দাঁড়ানো উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি৷ এই ছবির মুক্তি ও স্ক্রিনিং সব দর্শকের বয়কট করা উচিত বলে মত তাঁর৷ পদ্মাবতীর মতো ছবি দেশের সংস্কৃতির ক্ষতি করছে বলে জানিয়ে, এই বিজেপি বিধায়ক দেশের যুব সম্প্রদায়কে ছবিটি দেখা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন৷

প্রসঙ্গত, পয়লা ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে সঞ্জয় লীলা বনশালি পরিচালিত পদ্মাবতী৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I