নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাস ঠিক কি, জানতে চান? কিংবা তরুন তাজমহলের ইতিহাস। বিশ্বের যে কোনও জিনিস সম্পর্কে জানতে সবার আগে আজও একটা নাম মনে পড়ে ‘উইকিপিডিয়া।’ সে যেন এক আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপ। যা চাইবে তাই পাওয়া যায়। কিন্তু, আজ অসহায় সেই ‘উইকিপিডিয়া’। টাকা না পেলে হয়ত বন্ধ হয়ে যেতে পারে সেই সেই ওয়েবসাইট।

অ-লাভজনক সংস্থা হিসেবেই কাজ করে যাচ্ছিল এই ওয়েবসাইট। শুধু মানুষকে তথ্য যোগানোই ছিল কাজ। বিনামূল্যে অনায়াসে পড়ে ফেলা যাচ্ছিল সব তথ্য। এবার দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। তাই টাকা দিয়ে সাহায্যের আর্জি জানাচ্ছে এই সংস্থা। ভারতীয়দের কাছে সেই আর্জি জানানো হচ্ছে। ওয়েবসাইট খুললেই পড়া যাচ্ছে পাঠকদের উদ্দেশ্যে লেখা সেই বার্তা।

সেখানে যা লেখা আছে, তার বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ‘বলতে অস্বস্তি লাগছে। তবু সরাসরিই বলি। বুধবার থেকে আমরা সবার কাছে আর্জি জানাচ্ছি উইকিপিডিয়াকে বাঁচানোর জন্য। আমরা ডোনেশনের উপরই নির্ভর করি। কিন্তু ৯৮ শতাংশ পাঠক কোনও ডোনেশন দেন না। যাঁরা পড়ছেন, তাঁরা যদি অন্তত ১৫০ টাকা করে দেন, যা এক সপ্তাহের কফি খাওয়ার খরচ, তাহলেও আগামী বছরগুলোতে টিকে থাকবে উইকিপিডিয়া। আমরা যখন ‘উইকিপিডিয়া-কে অ-লাভজনক সংস্থা হিসেবে শুরু করেছিলাম। তখন অনেকেই বলেছিলেন, পরে আফশোষ করতে হবে। কিন্তু আমরা যদি উইকিপিডিয়া-কে বাণিজ্যিক সংস্থা বানাতাম, তাহলে বিশ্বের হয়ত অনেক ক্ষতি হয়ে যেত। ‘উইকিপিডিয়া আপনাদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য, নিরপেক্ষ তথ্য পৌঁছে দেবে। শুধু একটু সময় নিয়ে সাহায্য করুন ‘উইকিপিডিয়া-কে টিকিয়ে রাখতে।’

সর্বনিম্ন ১৫০ টাকা থেকে শুরু, চাইলে ৫ হাজার কি তারও বেশি দিতে পারেন পাঠক। এখন উইকিপিডিয়া খুললেই ডোনেট অপশন আসছে। সেখানে গিয়ে ক্লিক করলেই খুলে যাবে একটি নতুন পেজ। সেখানে ডেবিট কার্ডের যাবতীয় তথ্য দিয়ে টাকা পেমেন্ট করলেই হবে সাহায্য।

ডেবিট কার্ড ছাড়াও, পে-টিএম দিয়েও টাকা দেওয়া যাবে এই সংস্থাকে।