আমস্টারডাম: ডাচ মিডফিল্ডার জর্জিনিও উইনালডামের(Georginio Wijnaldum) নয়া ঠিকানা হল প্যারিস সাঁ জাঁ(PSG)। বার্সেলোনায়(Barcelona) একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যাওয়ার পরেও দিনকয়েক আগে শেষ মুহূর্তে তাঁকে ‘হাইজ্যাক’ করে ফ্রান্সের ক্লাবটি। কাতালান ক্লাব প্রাক্তন লিভারপুল(Liverpool) ফুটবলারের থেকে মৌখিক সম্মতি পেলেও মেডিক্যাল সম্পন্ন হয়ে চূড়ান্ত চুক্তিতে সইয়ের আগেই উইনালডামকে দ্বিগুণ পারিশ্রমিক অফার করে পিএসজি। বার্সেলোনার মতোই তিনবছরের জন্য চুক্তির প্রস্তাব দেয়। আর তাতেই বার্সেলোনার পরিবর্তে উইনালডামের নতুন ঠিকানা হয় পিএসজি।

ইউরো(Euro Cup 2020) শুরুর আগে জাতীয় ক্যাম্পে মেডিক্যাল সেরে ইউটিলিটি এই ফুটবলারকে সই করিয়ে নিল নেইমারের(Neymar Jr) ক্লাব। চুক্তি ২০২৪ পর্যন্ত। বার্সেলোনার মুখের গ্রাস কেড়ে নেওয়া এই ডাচ ফুটবলারকে মরশুম পিছু সাড়ে ৯ মিলিয়ন ইউরো পারিশ্রমিক দেবে পিএসজি। ক্লাবের ওয়েবসাইটকে উইনালডাম জানিয়েছেন, ‘পিএসজি-তে চুক্তিবদ্ধ হওয়া আমার কাছে নয়া চ্যালেঞ্জ। আমি ইউরোপের সেরা স্কোয়াডে যোগদান করছি। আর এখানে যোগ দিয়ে আমি আমার সকল লক্ষ্য এবং দায়বদ্ধতা পূরণ করতে চাই।’

ডাচ ফুটবলার আরও বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে পিএসজি প্রমাণ করেছে যে তারা কতোটা শক্তিশালী এবং আমিও বিশ্বাস রেখেছি। অনুরাগীদের সমর্থনে আমরা আরও শীর্ষে পৌঁছতে পারব বলেই আমার বিশ্বাস।’ উল্লেখ্য একজন ইউটিলিটি মিডফিল্ডারের পাশাপাশি ২০২০-২১ চোট-আঘাতে জর্জরিত মরশুমে লিভারপুলের হয়ে সেন্টার-ব্যাক হিসেবেও প্রমাণ দিয়েছেন উইনালডাম। লিলের কাছে লিগ ওয়ান হাতছাড়া হওয়ার পর স্কোয়াড আরও শক্তিশালী করতে উদ্যোগী হয়েছে ২০১৯-২০ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালিস্টরা। মধ্যমনি নেইমারের সঙ্গে আরও তিন বছরের চুক্তি বাড়িয়ে নিয়েছে।

আগামী মরশুমে কিলিয়ান এমবাপের(Kylian Mbappe) সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়ার আগেই তরুণ ফরাসি স্ট্রাইকারের সঙ্গে চুক্তি বাড়িয়ে নিতে চাইছে তারা। এমতাবস্থায় স্কোয়াডে উইনালডামের সংযোজন পিএসজি-র শক্তি যে বাড়াল বলাই বাহুল্য। ২০১৬ নিউক্যাসল(Newcastle United) থেকে অ্যানফিল্ডে(Anfield) যোগ দেওয়া ডাচ মিডফিল্ডারের সঙ্গে ২০২০-২১ শেষেই চুক্তি শেষ হয় ‘রেডস’-দের। উল্লেখ্য, লিভারপুলে তাঁর পাঁচ বছরের কেরিয়ারে ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ(UCL) এবং ২০১৯-২০ প্রিমিয়র লিগ(EPL) জয়ের অন্যতম কান্ডারি ছিলেন উইনালডম। ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিতে কাতালান ক্লাবের বিরুদ্ধে তাঁর পারফরম্যান্সের জন্য বহুদিন ডাচ মিডফিল্ডারকে মনে রাখবে লিভারপুল সমর্থকেরা।

প্রথম লেগে ০-৩ হেরে যাওয়া লিভারপুল ফিরতি লেগে ঘরের মাঠে ৪-০ হারিয়েছিল মেসিদের। আর সেই ম্যাচে জোড়া গোল ছিল উইনালডমের। লিভারপুলের জার্সিতে ২৩৭ ম্যাচ খেলে ২২ গোল করা উইনালডম আসন্ন ইউরোতে ভার্জিল ভ্যান ডাইকের(Virgil Van Dijk) অনুপস্থিতিতে জাতীয় দলের অধিনায়ক।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.