স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সারদার টাকা যে তৃণমূল নেতাদের পকেটে আছে সেটা প্রমানিত হচ্ছে। তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়ের টাকা ফেরানোর ঘোষণার পর এই মন্ত্যব্য করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সোমেন মিত্র।

তিনি বলেন, “সারদাকাণ্ড তো অনেকদিন ধরেই চলছে। তা হঠাৎ এতদিন পর ওনার মনে হল কেন? তবে দেরিতে হলেও সুবুদ্ধি হয়েছে এটা ভালো।”

মিঠুন চক্রবর্তীর পর এবার সারদার টাকা ফেরত দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করে ইডিকে চিঠি লিখেছেন শতাব্দী।

চিঠিতে বীরভূমের সাংসদ জানিয়েছেন, সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে ৪২ লক্ষ টাকা নেওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু টিডিএস কেটে তিনি পেয়েছিলেন ২৯ লক্ষ টাকা। সেই ২৯ লক্ষ টাকাই ইডির হাতে শতাব্দী তুলে দিতে চান। আগামী ৭ অগাস্ট সংসদে অধিবেশন শেষের পরই ইডি দফতরে গিয়ে সেই টাকা ফেরত দিতে চান বলে চিঠিতে জানিয়েছেন শতাব্দী।

উল্লেখ্য, সারদা তদন্তে ইতিমধ্যেই তৃণমূল সাংসদকে তলব করেছে ইডি। সেই তলবের জবাব দিতে গিয়েই ইডিকে চিঠি লিখে টাকা ফেরানোর প্রস্তাব দিয়েছেন শতাব্দী।