শুধু দশভুজা দুর্গাই নয়, হিন্দু ধর্মে এমন অনেক দেবতা রয়েছে যাদের হাতের সংখ্যা দুইয়ের বেশি। বিষ্ণু, ব্রহ্মা প্রত্যেকেরই কিন্তু একাধিক হাত। কারও হাতে শঙ্খ-চক্র, কারও হাতে ত্রিশূল। কিন্তু কেন এইসব দেবতার একাধিক হাত থাকে জানেন? এর পিছনে রয়েছে এক বিশেষ কারণ।

আরও পড়ুন: কেন মেয়েদের হাতে চুড়ি পরতে হয় জানেন? রয়েছে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা

মূলত কোনও দেবতার শক্তি ও ক্ষমতা বোঝাতেই এত সংখ্যায় হাত থাকে। আর অবশ্যই দেবতারা সাধারণের থেকে বেশি ক্ষমতাধর হিসেবে বর্ণিত, তাই তাঁদের বেশি হাত থাকাটাই স্বাভাবিক। আর একটি কারণ হল, দেবতারা যে একই সময়ে একাধিক কাজ করতে পারতেন সেটা বোঝানোর জন্যই তাঁদের রূপের বর্ণনায় একাধিক হাতের কথা উল্লেখ রয়েছে।

আরও পড়ুন: জানেন পায়ে আংটি পরলে মহিলাদের ঋতুচক্র হয় স্বাভাবিক?

তবে হাতগুলির কোনোটাই কিন্তু খালি থাকে না। ফুল হোক, বা অস্ত্র কিছু না কিছু হাতে ধারণ করেন দেবতারা। যেমন ভগবান শ্রী বিষ্ণুর চার হাতে থাকে শঙ্খ, চক্র, গদা, পদ্ম। অস্ত্র ছাড়াও বিভিন্ন যন্ত্রও থাকে তাঁদের হাতে, যেমন ধরা যাক সরস্বতীর বীণা, শিবের হাতে ডুগডুগি ইত্যাদি। এর প্রত্যেকটাই কিন্তু কিছু না কিছুর প্রতীক। সংশ্লিষ্ট দেবতা কিসের প্রতীক সেটা তাঁর হাতে থাকা বিভিন্ন জিনিস থেকেই বোঝা যায়। এভাবেই হিন্দু ধর্মে একাধিক প্রতীকের ব্যবহার রয়েছে।