তিস্তা জলবন্টন চুক্তি ‘হাইজ্যাক’ করে কেন্দ্র ও পশ্চিমবঙ্গ

গ্যাংটক: তিস্তা জলবন্টন চুক্তি ঘিরে একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকার ও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সমালোচনায় সিকিম৷ জাতীয় স্তরের এক সংবাদ মাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে সিকিমের মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা অমলেন্দু কুণ্ডুর অভিযোগ, রাজ্যকে দূরে রেখে আন্তর্জাতিক এই ইস্যুকে বরাবর ‘হাইজ্যাক’ করা হয়েছে৷

অমলেন্দুবাবুর আরও অভিযোগ, তিস্তা জলবন্টন চুক্তি নিয়ে কখনও মুখ্যমন্ত্রী পবন কুমার চামলিঙের সঙ্গে আলোচনা করা হয়নি৷ যদিও তিস্তার উৎপত্তি সিকিমের হিমবাহ থেকে৷ এরপর পশ্চিমবঙ্গ পেরিয়ে তিস্তা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে৷ তাই তিস্তা জলবন্টন ইস্যুতে সিকিমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে৷

সিকিমের মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের সমালোচনা করেছেন৷ তাঁর অভিযোগ, তিস্তার জলবন্টন নিয়ে ঢাকার তরফেও সিকিম সরকারের সঙ্গে কোনও আলোচনা করা হয়নি৷ অথচ অভিযোগ করা হয়, সিকিম নাকি তিস্তার জল আটকে রাখে৷ এর ফলে পশ্চিমবঙ্গে বন্যা হয়৷ এটা ঠিক নয়৷ সমস্যা সমাধানে অনেকবার মুখ্যমন্ত্রী পবন কুমার চামলিঙ ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের দাবি করেছেন৷ সেই বৈঠক আর হয়নি৷

- Advertisement -

কী করে সিকিমকে বাদ দিয়ে তিস্তা জলবন্টন চুক্তি সংক্রান্ত বৈঠক হতে পারে ? এমনই প্রশ্ন তুলেছেন সিকিমের মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা৷ তিনি জানান, একসঙ্গে আলোচনা করেই ইস্যুটির সমাধান হতে পারে৷ তিস্তা জলবন্টন ইস্যুতে আগামী দিনে সিকিমের স্বার্থ তুলে ধরা হবে বলেও জানান অমলেন্দু কুণ্ডু৷

সিকিমে ক্ষমতায় রয়েছে এসডিএফ (সিকিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট)৷ দলটি জাতীয় স্তরে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ শরিক৷ ১৯৯৪ সাল থেকে একটানা সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পদে রয়েছেন পবন কুমার চামলিঙ৷

All rights reserved by @ Kolkata24x7 II প্রতিবেদনের কোন অংশ অনুমতি ছাড়া প্রকাশ করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
-