রাঁচি: লকডাউনে শুধু ক্রিকেটাররাই নয়, তাঁদের স্ত্রীরাও সোশাল মিডিয়ায় অত্যান্ত অ্যাকটিভ৷ বিশেষ করে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির স্ত্রী সাক্ষী৷ বরং বলা ভালো ধোনির থেকে বহুগুণে সোশাল মিডিয়া চর্চায় থাকেন ভারতীয় ক্রিকেটার প্রক্তন ফার্স্ট লেডি৷ সোমবারও ইনস্টাগ্রামে এমনই পোস্ট করে চর্চার কেন্দ্রে ধোনিপত্নী৷

এদিন সন্ধ্যায় সাক্ষী সিং ধোনির তাঁর ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্টে একটি ছবি পোস্ট করেন, যেখানে দেখা গিয়েছে এক সদ্যজাতকে কোলে নিয়ে রয়েছে তাঁর পাঁচ বছরের মেয়ে জিভা৷ আর এই ছবি ঘিরে তৈরি হয়েছে ধোনি ও তাঁর ফ্যানেদের মধ্যে কৌতুহল৷ কারণ এই ক্যাপশনে কিছুই লেখেননি সাক্ষী৷ স্বাভাবিকভাবেই এটি কার সন্তান তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ফ্যানেরা৷ অনেকে আবার তা জানার অপেক্ষা না-করে ধোনিপত্নীকে অভিনন্দন জানিয়ে দিয়েছেন৷

দু’দিন আগেই সবাইকে অবাক করে লকডাউনের মধ্যে নিজের এনগেজমেন্ট ঘোষণা করেছেন টিম ইন্ডিয়ার লেগ-স্পিনার যুবেন্দ্র চাহাল৷ আর এদিন মেয়ের কোলে সদ্যজাত শিশুর ছবি পোস্ট করে জল্পনা উসকে দিলেন ধোনিপত্নী৷ শুধু সাক্ষীর ইনস্টাগ্রামেই নয়, জিভার ইনস্টাগ্রামেও একই ছবি পোস্ট করা হয়েছে৷ তবে সাক্ষীর ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের মাত্রা অনেক বেশি থাকায় কয়েক ঘণ্টার মধ্যে লাইক-শেয়ার হুহু করে বেড়ে গিয়েছে৷

ঘণ্টা তিনয়েকের মধ্যেই সাক্ষীর পোস্টে প্রায় ৪ লক্ষ লোক লাইক করেছেন৷ আর প্রায় দু’হাজার জন কমেন্ট করেছেন৷ তবে এটি কার সন্তান তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি সাক্ষী৷ তাই কৌতুহল আরও দানা বেঁধেছে৷ তবে ইনস্টাগ্রাম থেকে ইনকাম করার জন্য সেলেব্রিটিরা হামশাই এমন পোস্ট করে থাকেন৷ কারণ ইনস্টাগ্রাম নামক সোশাল মিডিয়া থেকে কোটি কোটি টাকা আয় করেন বিশ্বের সেলেব্রিটিরা৷

ধোনিপত্নী সাক্ষী ২০১৫ সালে জিভার জন্ম দেন৷ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপ চলাকালীন জিভার জন্ম হওয়ায় সে সময় স্ত্রীর পাশে থাকতে পারেননি প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি৷ তবে এবার কি তাহলে দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হলেন ধোনি? এমনই প্রশ্নও ছুঁড়ে দিয়েছেন অনেকে৷ মাসখানেকের মধ্যে আইপিএলে নামতে চলেছেন ধোনি৷

২০২০ আইপিএল শুরু হতে চলেছে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে৷ ফাইনাল হবে ১০ নভেম্বর৷ শোনা যাচ্ছে ২২ অগস্টে আমিরশাহী পৌঁছে যাচ্ছে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস৷ এবারের আইপিএল হবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে৷ এ নিয়ে সোমবারই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সবুজ সংকেত পেয়ে গিয়েছে বিসিসিআই৷ এদিন এমনটাই জানিয়েছেন আইপিএল চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল৷ সরকারের ছাড়পত্রের বিষয়টি খুব শীঘ্রই ফ্র্যাঞ্চাইজিরে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা