স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নোভেল করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নয়া পদক্ষেপ নিল কলকাতা পুরসভা। হগ মার্কেটে বসানো হল ‘স্যানিটাইজিং গেট’। ওই গেটের মধ্যে দিয়ে মার্কেটে প্রবেশ করার সময় শুধু হাত নয়, গোটা শরীর স্যানিটাইজ করা হবে। পরীক্ষামূলক ভাবে হগ মার্কেটের ১ নম্বর গেটের সামনেই এই ‘স্যানিটাইজিং গেট’ বসানো হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার বেড়েছে ব্যাপক মাত্রায়। কিন্তু এতে কেবল ছোটো পরিসরে জীবাণু দূরীকরণ সম্ভব।

নিউ মার্কেটের মতো একটি ব্যস্ত বাজারের সমস্ত মানুষের সুরক্ষার জন্য এই প্রথম বড় মাত্রায় জীবাণু দূরীকরণের ব্যবস্থা নেওয়া হল। কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এফ. হার্লে কোম্পানির হার্লে সানিকুল শাখাকে।

কোম্পানির প্রতিনিধি অপূর্ব কক্কর জানিয়েছেন, এই যন্ত্রটি অন্যান্য যন্ত্রের থেকে একটু আলাদা। কারণ এতে যে রাসায়নিক পদার্থটি ব্যবহার করা হয়েছে, সেটি সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট নয়। জীবাণুমুক্ত করার কাজে সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হলেও, এটি মানুষের শরীরের যথেষ্ট ক্ষতি করে। তাই এক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে হাইড্রোজেন পারক্সাইডের লঘু দ্রবণ।

ফলে এই যন্ত্রটি মানুষের শরীরের তেমন ক্ষতি করবে না। সেইসঙ্গে বিশেষ সেন্সরের ব্যবহার করা হয়েছে, যাতে অহেতুক রাসায়নিক পদার্থ খরচ না হয়। পুরসভার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীরাও। সেইসঙ্গে তাঁরা দাবি করেছেন, বাজারের অন্য গেটগুলিতেও যাতে এমন যন্ত্র বসানো হয়। সূত্রের খবর, হগ মার্কেটে এটা প্রথম পরীক্ষামূলক হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। আগামীতে আরও ৭১টি মার্কেটে এই গেট বসানো হবে।