প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: ‘‘অর্জুন সিং কী করে জানল সন্ধ্যা ৬টার পর আমাকে ফোনে পাওয়া যায় না?’’ দীনেশ ত্রিবেদীর সঙ্গে ভোটপ্রচারে বেরিয়ে পাল্টা বিজেপি প্রার্থীকে কথা শোনালেন মদন মিত্র৷ একদা রাজনৈতিক সতীর্থ অর্জুন সিংয়ের গড় ভাটপাড়া কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়িয়েছেন মদন মিত্র৷ শুক্রবার বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে এসে অর্জুনকেই নিশানা করেন তিনি৷ পাশাপাশি নিজেকে দাঁতাল হাতির সঙ্গে তুলনা করেন মদন মিত্র৷

মদনকে তোপ দেগে বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং বলেছিলেন, ‘‘ওঁকে তো সন্ধ্যা ছ’টার পর পাওয়া যায় না৷’’ এই নিয়ে এদিন মদন মিত্রকে প্রশ্ন করা হলে তিনি নিজস্ব ভঙ্গিমায় বলেন, ‘‘ও কি করে জানল যে আমাকে কোনও ভাবে ৬টার পর পাওয়া যায় না। তার মানে ও সঙ্গেই থাকে। আমি শুনেছি, লোকের কাছে এখানে যে গুন্ডা বলে পরিচিত সে এখানকার বিভিন্ন চটকল থেকে তোলাবাজি করত। ২৫ বছর আগে অবসরপ্রপ্ত জুটমিলের শ্রমিকরাও এখনো গ্র্যাচুইটি, পিএফের বকেয়া টাকা পায়নি। ২৩ মে’র পর যে দিন যে শ্রমিক অবসর নেবেন সেই দিনই সেই শ্রমিক গ্র্যাচুইটির টাকা পাবেন। জুটমিলের শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধির বিষয়টিও আমরা দেখব।’’

তৃণমূল কর্মীদের উপর বিজেপি হামলা করলে পাল্টা জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন মদন৷ হুমকির সুরে বলেন, ‘‘একটা তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীর গায়ে হাত পড়লে আগুন জ্বলবে। ও মাতাল দেখেছে, দাঁতাল হাতি এখনো দেখেনি। এবার দাঁতাল হাতি দেখবে। ওঁকে বলব, এখনো সময় আছে নিজেকে গুটিয়ে নিক। আমার জামানত বজেয়াপ্ত হবে নাকি ও দুবাই পালাবে সেটা সময় বলবে। তবে ভাটপাড়ার মানুষ এবার গুণ্ডাগিরিকে গঙ্গায় বিসর্জন দেবে।”

পুরনো রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং। তিনি নিজে লোকসভা ভোটে প্রার্থী হওয়ায় তাঁকে ছাড়তে হয়েছে ভাটপাড়া বিধানসভার বিধায়ক পদ। সেই কারণেই উপনির্বাচন হতে চলেছে ভাটপাড়া বিধানসভায়। ভাটপাড়া বিধানসভার উপনির্বাচনে মদন মিত্র তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হওয়ায় পরই তাঁকে সমালোচনা করে অর্জুন সিং বলেন, “মদনকে প্রার্থী করায় দিদিমনির জন্য আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, এখানে উনি আর কোনও প্রার্থী খুঁজে পেলেন না। মদন তো এমন ব্যক্তি যাকে সন্ধ্যা ৬ টার পর আর পাওয়া যায় না। এরকম লোককে ভাটপাড়ার মানুষ ভোট দেবে না। ভাটপাড়ায় ওর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে।”

বারাকপুর লোকসভা নির্বাচন ও ভাটপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচন কার্যত সম্মান রক্ষার লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে। ভাটপাড়ার কুড়ি বছরের তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন অর্জুন সিং। দলের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন৷ নতুন দলে যোগ দিয়েই বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের টিকিট বাগিয়ে নিয়েছেন৷ তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদীর বিরুদ্ধে লড়াই করবেন অর্জুন৷ একদিকে বারাকপুর লোকসভা নির্বাচন, অন্যদিকে ভাটপাড়া বিধানসভার উপনির্বাচন৷ সবমিলিয়ে ভোটের উত্তাপে সরগরম উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর শিল্পাঞ্চল।