নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার শুরু হয় সংসদের যৌথ অধিবেশন৷ রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ মোদী সরকারের আগামী পাঁচ বছরের পরিকল্পনা তুলে ধরে বক্তব্য পেশ করেন৷ রাষ্ট্রপতির এই ভাষণ চলাকালীন প্রথম সারিতে বসা রাহুল গান্ধী ঠিক কী করছিলেন, সেই ছবি এবং ভিডিও উঠে এল সংবাদ মাধ্যম থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷

রাষ্ট্রপতি প্রায় এক ঘন্টার কিছু বেশি সময় ধরে বক্তব্য পেশ করেন৷ ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে রাষ্ট্রপতি এই ভাষণের সময় রাহুল গান্ধী প্রথম ২৪ মিনিট মোবাইলেই ব্যস্ত ছিলেন৷ মোবাইলে স্ক্রোল এবং কিছু টাইপ করার পরে পরবর্তী ২০ মিনিট তিনি পাশেই সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কিছু কথাবার্তা বলতে থাকেন৷ রাষ্ট্রপতি যখন সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এবং বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকের উল্লেখ করেন সেসময় সকলে টেবিল ঠুকে প্রতিক্রিয়া দিলেও রাহুল গান্ধী নীচে দেখছিলেন৷

পড়ুন: ‘এক দেশ, এক ভোট’ নীতির জন্য বিশেষ কমিটি

এদিন যৌথ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের পরই শুরু হয় সংসদের কার্যকলাপ৷ এদিন রাষ্ট্রপতি তাঁর ভাষণে নারী শক্তি, গরিবি দূরীকরণ, কৃষকদের উন্নতির কথা শুনিয়েছেন৷ গুরুত্ব দিয়েছেন তিন তালাক প্রথা বিলোপের উপর৷ জানান, নারীর সমানাধিকার রক্ষায় তিন তালাক বা নিকাহ হালালার মতো প্রথা বন্ধ হওয়া দরকার৷

এই অধিবেশনেই উঠে আসে মাসুদ আজহারের প্রসঙ্গ৷ জানান, সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ভারতের পাশে আজ গোটা বিশ্ব৷ মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দেওয়া লড়াইয়ে ভারতের পাশে শক্তিধর দেশগুলির দাঁড়ানোই তার প্রমাণ৷ পুলওয়ামা ও বালাকোট প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সাংবিধানিক প্রধান বলেন, সার্জিক্যাল ও এয়ারস্ট্রাইক করে দেশের সেনা তাদের শক্তির পরিচয় দিয়েছে৷ ভবিষ্যতেও দেশের নিরাপত্তা রক্ষায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷