নিউজ ডেস্ক : গরম পড়তে না পড়তেই যে জিনিষটির ওপর আমরা সবচেয়ে বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়ি, তাহল সানস্ক্রিন। রোদের তেজ যেভাবে দিনকে দিন বেড়ে চলেছে তাতে এই বস্তুটির সাহায্য না নিলে চলে না। গরমের হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করতে সানস্ক্রিন অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু ব্যবহার করলেই তো হল না। সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে নিজের ত্বক অনুযায়ী। নইলে দামি কোম্পানির সানস্ক্রিন ব্যবহার করলেও ট্যানের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে না।

এ প্রসঙ্গে বলা যায়, কোন ত্বকের জন্য কেমন সানস্ক্রিন লাগবে তা আমরা অনেকেই জানি না। তাই কেনার আগে জেনে নিন কোন ধরনের সানস্ক্রিন আপনার ত্বকের জন্য উপযুক্ত। রইল তিন ধরণের ত্বকের জন্য সানস্ক্রিন সমাধান –

অয়েলি স্কিন : যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তারা এমন সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন যা ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখার সঙ্গে সঙ্গে ত্বককে রাখবে তেল মুক্ত। তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ বা ফুসকুড়ির সমস্যা হতে পারে। তাই সানস্ক্রিন লোশন বা স্প্রে ব্যবহার করুন। যাদের ত্বকে ব্রণ বা ফুসকুড়ির সমস্যা রয়েছে গরম বাড়লে তাদের সমস্যা আরও বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে কোনও রাসায়নিক মিশ্রিত, কৃত্রিম সুগন্ধি যুক্ত সানস্ক্রিন এড়িয়ে চলুন।

ড্রাই স্কিন : যাদের ত্বক শুষ্ক, তারা ময়শ্চারাইজিং সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভাল ফল পাবেন। কারণ এই ধরনের সানস্ক্রিন ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

সেন্সিটিভ স্কিন : যদি আপনার ত্বক সংবেদনশীল হয়, তবে প্যারাবেন বা অক্সিবেন জোন যুক্ত সানস্ক্রিন এড়িয়ে চলুন। এই ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে ত্বকে র‌্যাশ দেখা দিতে পারে। টাইটেনিয়াম ডাই অক্সাইড বা জিঙ্ক অক্সাইডযুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে ভাল ফল পাবেন। ত্বক রক্ষার জন্য ন্যূনতম এসপিএফ ৩০ প্রয়োজন। যাদের ত্বকের রং ফর্সা, তারা এসপিএফ ৫০+ সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভাল ফল পাবেন।