প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাস ও মাস্ক নিয়ে চালানো ১৭২ টি সমীক্ষার বিশেষ কিছু তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে। এই প্রকল্পটিকে অর্থ দিয়ে সাহায্য করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সমীক্ষায় দেখা গেছে এন 95 মাস্ক কাপড় বা সার্জিক্যাল মাস্কের তুলনায় ভালো।

এই সমীক্ষার ফলাফল দ্য ল্যানসেট ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, হু-এর এই মুহূর্তে উচিৎ চিকিৎসক ও নার্সদের পরামর্শ দেওয়া তাঁরা যেন সার্জিক্যাল মাস্কের পরিবর্তে N95 মাস্ক ব্যবহার করেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলছে, জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডেভিড মাইকেলস জানিয়েছেন, সার্জিক্যাল মাস্ক পর্যাপ্ত পরিমাণে নেই। যদিও হু জানিয়েছে সার্জিক্যাল মাস্ক পর্যাপ্ত পরিমাণে রয়েছে। অন্যদিকিএ গার্জিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এন 95 এর মুখোশের অভাবের কারণে অনেক দেশ মানুষকে সাধারণ মাস্ক করার পরামর্শ দিয়েছে।

সমীক্ষায় ঊঠে এসেছে, এন 95 মুখোশ করোনা থেকে ৯৬ শতাংশ সুরক্ষা দেয়। অন্যদিকে সার্জিক্যাল মাস্ক করোনা থেকে ৭৭ শতাংশ সুরক্ষা দেয়। সব দেশ যখন তাঁদের অর্থনীতির চাকা চালানোর জন্য ভাবছে এমন অবস্থায় সামনে এসেছে এই সমীক্ষা।

অধ্যাপক ডেভিড মাইকেলস বলছেন, কেবল স্বাস্থ্যসেবা কর্মীরা না, যারা করোনা প্রভাবিত এলাকায় থাকছেন বা কর্মরত তাঁদেরও এন 95 মাস্ক ব্যবহার করা উচিৎ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও সমস্ত দেশে মাস্ক পড়ার পরামর্শ দেয়নি। তবে অনেক দেশ এখন মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করেছে। বিশেষজ্ঞরা মাস্কের প্রতি হু -এর নীতি নিয়েও অসন্তুষ্টিও প্রকাশ করেছেন। অনেক বিশেষজ্ঞ বিশ্বাস করেন যে মাস্ক হল করোনার প্রতিরোধের একটি সহজ এবং সাশ্রয়ী উপায়।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প