নয়াদিল্লি: পঞ্চম দফার লকডাউন অন্যান্য বারের থেকে একেবারে আলাদা। এবার অনেক জায়গা থেকেই কার্যত উঠে যাচ্ছে লকডাউন। তাই এবারের নির্দেশিকাকে বলা হচ্ছে “Unlock 1”.

কনটেনমেন্ট জোন ছাড়া অন্যান্য জারি সবকিছুই খুলে যাবে। নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে সচল হবে গোটা দেশ। অফিস, মন্দির-মসজিদ সহ একাধিক ক্ষেত্রে ছাড় দিচ্ছে কেন্দ্র। তবে কিছু কিছু জায়গায় এখনও বিধি-নিষেধ জারি থাকছে।

কী কী খুলল না, দেখে নিন একনজরে:

১. স্কুল, কলেজ সহ কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ট্রেনিং ইনস্টিটিউট খুলছে না। জুলাই মাসে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্লগধলির সঙ্গে কথা বলে কেন্দ্র এইসব ক্ষেত্রের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

২. বন্ধ থাকছে আন্তর্জাতিক রুটের সব বিমান। শুধুমাত্র স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অণুমোদন থাকলেই সেই বিমান উড়বে।

৩. এবারও চালু হল না মেট্রো পরিষেবা।

৪. বন্ধ থাকছে সিনেমা হল, জিম, সুইমিং পুল, এন্টারটেনমেন্ট পার্ক, থিয়েটার, বার, অডিটোরিয়াম, হল বা এই ধরনের জায়গা।

৫. সামাজিক, রাজনৈতিক, ক্রীড়া সংক্রান্ত, শিক্ষা সংক্রান্ত, সাংস্কৃতিক বা ধর্মীয় কোনও জমায়েত চলবে না।

৬. জরুরি পরিষেবা ছাড়া রাত ৯ টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত কেউ কোথাও যেতে পারবে না।

৭. কনটেনমেন্ট জোনে জরুরি পরিষেবা ছাড়া আর কিছু খোলা থাকছে না।

কন্টেনমেন্ট জোন ছাড়া অন্য এলাকায় ধর্মীয়স্থান, হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট ৮ তারিখের পর খোলার অনুমতি দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

বর্তমান পর্যায়ে আনলক ১ -এ অর্থনীতির দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে বলে জানাচ্ছে গাইডলাইন। রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলির সঙ্গে পরামর্শের পরেই এই নতুন গাইডলাইন জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

উল্লেখ্য মার্চ থেকে লকডাউন চললেও এখনও করোনাকে বাগে আনা যায়নি দেশে। উলটে দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যা। এমতাবস্থাতেই এল আনলক-১।

শনিবার দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৭৩ হাজার ৭৬৩। এর মধ্যে অ্যাক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৪২২ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮২ হাজার ৩৭০ জন।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV