শ্রীনগর: পুলওয়ামার হামলার পর দেশজুড়ে কাশ্মীরিদের উপর হচ্ছে হামলা৷ নিজের রাজ্যে ফিরে যাওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়েছে৷ এমনকী কাশ্মীরিদের বয়কট করার আওয়াজও উঠেছে৷ সেই কাশ্মীরিদের মানবিক মুখ দেখল ভূস্বর্গে বেড়াতে আসা পর্যটকেরা৷ বিপদে পড়া পর্যটকদের জন্য বিনা পয়সায় হোটেলে থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করে মুশকিল সময়ে পাশে থাকার বার্তা দিলেন কাশ্মীরিরা৷

১৪ ফেব্রুয়ারির পর থেকে খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে ভারত-পাক সম্পর্ক৷ পরিস্থিতি উত্তপ্ত৷ দুই দেশের আকাশে বাতাসে ভাসছে বারুদের গন্ধ৷ যেকোনও সময় বেঁধে যেতে যুদ্ধের ডঙ্কা৷ এরই মধ্যে বুধবার পাকিস্তানের আকাশপথে হামলার পর জম্মু ও কাশ্মীরের বেশ কয়েকটি বিমানবন্দরে বাণিজ্যিক বিমান ওঠা নামা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ ধস নামায় বেশ কিছু রাস্তাও বন্ধ৷ সবদিক থেকে সমস্যায় পড়েছেন কাশ্মীর বেড়াতে আসা পর্যটকরা৷ ভরসা সেই বিমান৷ কিন্তু উড়ান পরিষেবা স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত কাশ্মীর থেকে নেমে আসার আপাতত কোনও সম্ভাবনা নেই৷

এই পরিস্থিতিতে পর্যটকদের ফিরে যেতে হচ্ছে হোটেলেই৷ কিন্তু হোটেলে গিয়ে তাঁরা অবাক৷ ভূস্বর্গে আটকে পড়া পর্যটকদের জন্য বিনা পয়সায় থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে বেশ কিছু হোটেল ও হাউসবোটের মালিকরা৷ হোটেলগুলির তরফে বলা হয়েছে যতদিন না উড়ান পরিষেবা স্বাভাবিক হচ্ছে ততদিন পর্যটকরা এই সুযোগ সুবিধা পাবেন৷ ট্যুইটার ও ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে পর্যটকদের প্যানিক না করার বার্তা দেওয়া হয়েছে৷ শ্রীনগরে আটকে পড়া পর্যটকদের আশ্বস্ত করে হোটেলগুলি জানিয়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া অবধি যতদিন খুশি থাকুন, লাগবে না কোনও টাকাকড়ি৷

এদিকে ভিন রাজ্য থেকে কাজের জন্য কাশ্মীরে যাওয়া শ্রমিকরা আতঙ্কে রাজ্য ছাড়তে শুরু করেছে৷ জম্মুর লাইমস্টোন ফ্যাক্টরিতে কাজ করেন ব্রজেশ প্রসাদ৷ উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা ব্রজেশকে বারবার তাঁর স্ত্রী ফোন করে বাড়ি ফিরে আসার তাগাদা দিচ্ছেন৷ জম্মুর রেলস্টেশনের টিকিট কাউন্টারে দাঁড়িয়ে নিজেই জানালেন সেকথা৷ আপদকালীন টিকিট পেয়েছেন৷ এবার বাড়ি ফেরার পালা৷